বড়সড় ধাক্কা খেলেন ‘লিকার ব্যারন’ বিজয় মাল্য। ঋণখেলাপি মামলায় তাঁকে স্টেট ব্যাঙ্ক-সহ ভারতের ১৩টি ব্যাঙ্ককে আপাতত ২ লক্ষ পাউন্ড (ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ১ কোটি ৮২ লক্ষ টাকা) ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে ব্রিটেনের হাইকোর্ট। তবে সুদ ও আসল খতিয়ে দেখার পর আর্থিক দণ্ডের পরিমাণ আরও বাড়তে পারে বলে আদালতের তরফ থেকে জানানো হয়েছে।

ভারতীয় ব্যাঙ্কগুলির কাছ থেকে প্রায় ৯ দাজার কোটি টাকা হাতিয়ে ‘কিং অব গুড টাইমস’ বিজয় মাল্য দেশ ছাড়েন ২০১৬ সালের ২ মার্চ। এর পর থেকেই তিনি ব্রিটেনে রয়েছেন। বকেয়া ঋণ উদ্ধারের জন্য ব্রিটিশ হাইকোর্টে মামলা করেছিল ১৩টি ভারতীয় ব্যাঙ্ক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের জোট।

বিশ্ব জুড়ে মাল্যর সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার যে নির্দেশ রয়েছে, তা-ও বহাল রেখেছে ব্রিটেনের হাইকোর্ট। আদালত জানিয়েছে, বাজেয়াপ্ত সম্পত্তির রেজিস্ট্রেশনের খরচও দিতে হবে বিজয় মাল্যকে। আর্থাত্‌ আইন আদালত থেকে বাঁচার জন্য ব্রিটেনে পালিয়েও খুব একটা লাভ হল না মাল্যর, এমনটাই মনে করছে বিশেষজ্ঞরা। আইনের ফাঁসে আঁটকে তাঁর এখন সঙ্গিন দশা।

আরও পড়ুন: শুজাত খুনে গ্রেফতার সন্দেহভাজন

আরও পড়ুন: আমরা জঙ্গি! চটে লাল ভিএইচপি

প্রশ্ন উঠছে, ভারতীয় ব্যাঙ্কগুলিকে আপাতত ২ লক্ষ পাউন্ড ক্ষতিপূরণ দিয়েই কি দায় মুক্ত হতে পারবেন মাল্য? জানা গিয়েছে, মাল্যর বিরুদ্ধে আরও একটি ঋণখেলাপি মামলায় শুনানি এখনও বাকি রয়েছে। সঙ্গে চলছে প্রত্যার্পন মামলা। এ নিয়ে মাল্যর তরফ থেকে প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি ঠিকই। তবে তাঁর আইনজীবীর দাবি, মাল্যর বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।