ড্রোন হানায় পাক তালিবান নেতা ফজ়লুল্লা মারা গিয়েছে বলে দাবি করল আফগানিস্তান। খবরটির উৎস মার্কিন এক সেনাকর্তা। তিনি তাঁর দেশের এক রেডিয়ো সংস্থাকে শীর্ষস্থানীয় এক জঙ্গি নেতার বিরুদ্ধে অভিযানের কথা জানানোর পরেই আফগান সরকার আজ দাবি করেছে, ‘রেডিয়ো মোল্লা’ তথা মোল্লা ফজ়লুল্লা (৪৪) নিহত হয়েছে। ২০১২ সালে এই তালিবান জঙ্গি নেতাই মালালা ইউসুফজ়াইকে  গুলি করেছিল বলে অভিযোগ। 

একাধিক সূত্রের দাবি, মার্কিন সেনা পাকিস্তান সীমান্তের লাগোয়া আফগানিস্তানের দাঙ্গাম জেলার নুর গুল কালে গ্রামে ড্রোন অভিযান চালায় বুধবার। তাতেই তেহরিক-ই-তালিবান পাকিস্তান (টিটিপি)-এর প্রধান  ‘রেডিয়ো মোল্লা’ নিহত হয়েছে। আফগানিস্তানে মোতায়েন মার্কিন বাহিনীর মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট কর্নেল মার্টিন ও’ডোনেল গত কাল মার্কিন রেডিয়ো সংস্থাকে জানান, পাক সীমান্ত লাগোয়া কুনার প্রদেশে বুধবার একটি জঙ্গি সংগঠনের শীর্ষস্থানীয় নেতার বিরুদ্ধে অভিযান হয়েছে। এর পরে আজ আফগান প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের মুখপাত্র মহম্মদ রাদমানেশ ঘোষণা করেন, ‘‘আফগান-মার্কিন যৌথ অভিযানে মোল্লা ফজ়লুল্লা নিহত হয়েছে। মারা গিয়েছে আরও দুই তালিবান জঙ্গি।’’

মালালাকে গুলি করার পরের বছর ২০১৩-তে জঙ্গি দলে ‘পদোন্নতি’ হয় ফজ়লুল্লার। টিটিপি-র প্রধান হয় সে। ২০১৪ সালে পেশোয়ারের সেনা স্কুলে ১৩০ জন পড়ুয়া-সহ ১৫১ জন হত্যা ও তার অন্যান্য কুকীর্তির তালিকাটি দীর্ঘ। আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদী হিসেবে আমেরিকা তার মাথার দাম ঘোষণা করে ৫০ লক্ষ ডলার, ভারতীয় ৩৪ কোটি টাকার বেশি। 

এখনও আশঙ্কা একটাই, ‘রেডিয়ো মোল্লা’ ফজ়লুল্লা সত্যি মারা গিয়েছে তো! কারণ, গত আট বছরে অন্তত চার বার তার মৃত্যুর খবর ছড়িয়েছিল। ফলে আজকের খবরটির সত্যতা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে বিভিন্ন মহলে। টিটিপি-র তরফে কেউ এখনও তার মৃত্যুর কথা স্বীকার করেনি।