ব্যাঙ্কের ‘লোন’ শোধ না করে দেশছাড়া। কিন্তু বিভুঁইয়ে বড়ই ‘লোনলি’! অতএব...।

বিজয় মাল্যর তৃতীয় বিয়ের খবরে উত্তাল ট্যুইটার-ফেসবুক। কিংগফিশার এয়ারলাইন্স চালু হওয়ার পরে বহু ছবিতেই  মাল্যকে ঘিরে থাকতেন লাল পোশাকের এয়ারহোস্টেসরা। পিঙ্কিও ছিলেন সেই দলে। ২০১১-য় এয়ারহোস্টেস হিসেবে যোগ দেন। ৬২ বছর বয়সে তাঁকেই এখন বিয়ে করতে চলেছেন মাল্য। কিংগফিশার বিমানের ব্যবসা মুখ থুবড়ে পড়লেও প্রেমের উড়ানে অফুরান জ্বালানি।

নেট দুনিয়ায় সকলেরই তাই এক সুর। মাল্য ফের প্রমাণ করলেন, তিনি সত্যি ‘কিংগ অব গুড টাইমস’। থাকলই বা তাঁর মাথায় ৯ হাজার কোটি টাকার দেনা। হলই বা, তিনি সাড়ে ৬ লক্ষ পাউন্ড জমা দিয়ে জামিন পেয়েছেন। হলই বা তাঁকে কেন দেশে ফেরানো যাচ্ছে না, সেই প্রশ্নে খোদ নরেন্দ্র মোদী জেরবার।

মাল্য এখন থাকেন ব্রিটেনের হার্টফোর্ডশায়ারের প্রাসাদে। লন্ডন থেকে ঘণ্টা দেড়েকের রাস্তা। পিঙ্কি সেখানে মাল্যর সঙ্গে ‘লিভ-ইন’ করছেন বলে খবর। মাল্যর বিরুদ্ধে মামলা, স্কটল্যান্ড ইয়ার্ডের হাতে গ্রেফতারি, সম্পত্তি নিলাম— পিঙ্কি বরাবরই মাল্যর পাশে থেকেছেন। তাতেই প্রেম আরও গাঢ় হয়েছে। গত তিন বছরে পিঙ্কিকে কখনও মাল্যর সঙ্গে। কখনও আবার মাল্যর মা-র সঙ্গেও দেখা গিয়েছে। শোনা যাচ্ছে, কিছু দিন আগে সম্পর্কের তৃতীয় বর্ষপূর্তিতে পার্টিও দিয়েছেন পিঙ্কি!

আরও পড়ুন: তৃতীয় বিয়ের পথে বিজয় মাল্য! কে এই পাত্রী?

মাল্যর প্রথম স্ত্রী সমীরা তায়েবজিও বিমানসেবিকা ছিলেন। তাঁরই ছেলে সিদ্ধার্থ। দ্বিতীয় স্ত্রী রেখা-র সঙ্গে এখনও আইনি বিচ্ছেদ হয়নি।
বাবার ফের বিয়ের খবরে সিদ্ধার্থও এখনও নীরব।

কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়া তো নীরব নয়। সেখানে অনেকেই তাঁকে অযাচিত সান্ত্বনা দিচ্ছেন! বলছেন, বেচারা ছেলেটা এক বারও বিয়ের পিঁড়িতে বসতে পারল না! বাবা তৃতীয় বার বিয়ের পিঁড়িতে বসতে যাচ্ছেন।

দু’দিন আগে বেঙ্গালুরুতে মাল্যর সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ দিয়েছে কোর্ট। রসিক নেটিজেনরা প্রশ্ন তুলছেন, বিয়েতে পাওয়া যৌতুক দিয়েই কি তবে এ বার ব্যাঙ্কের দেনা শোধ করবেন মাল্য? উঠতি বয়সের ছেলেরা আবার মনে ভরসাও পাচ্ছেন। কপর্দকশূন্য হলেও তবে কনে জোটে!