• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

গাড়ির বনেট খুলতেই বেরিয়ে এল অজগর সাপ, তারপর...

fb post
ওমরো পুলিশ বিভাগের ফেসবুক থেকে নেওয়া।

Advertisement

গাড়িটা কেমন যেন আজব ব্যবহার করছে। চালাতে চাইলেও অসুবিধা হচ্ছে। আচমকাই জোরে এগিয়ে যাচ্ছে। আর তার পর ব্রেক কাজ করছে না। নতুন এসইউভি-এর উপর রীতিমতো রাগ হচ্ছিল আমেরিকার উইসকনসিনের বাসিন্দা এক মহিলার।

ওমরোর এই বাসিন্দা গাড়ি সারাইয়ের জন্য লোক ডেকেছিলেন বাধ্য হয়েই। তার পরেই বেরিয়ে এল চার ফুটের একটা অজগর সাপ। সেই সাপ সরাতে খবর দেওয়া হল পুলিশে। দুই পুলিশ আধিকারিক উপস্থিতও হলেন ঘটনাস্থলে। উদ্ধারকারী দলের সাহায্যে ইঞ্জিনের কম্পার্টমেন্ট থেকে সাপটিকে সরাতে রীতিমতো নাজেহাল অবস্থা হল তাঁদের।

ফেসবুকে পোস্টও হল সেই ছবি। মুহূর্তের মধ্যে ২ হাজার জন শেয়ার করলেন। ভেসে এল অজস্র মন্তব্য। ভাইরাল হল সেই পোস্টটি।

‘‘হে ভগবান! আমি আর কোনও দিন গাড়ির বনেট খুলে দেখব না!’’ ফেসবুকে কমেন্ট করেন এক জন। এক জন লেখেন, ‘‘সাপ আর মানুষের মধ্যে মিল রয়েছে!’’

আরও পড়ুন: কেরলে বন্যায় বাড়িতেই ঢুকে আসছে বিষধর সব সাপ, দেখুন ভিডিয়ো

সাপটির যাতে কোনও রকম ক্ষতি না হয়, সেই চেষ্টাই করেছিলেন পুলিশ আধিকারিকরা। ওমরোর অফিসার পিটার্স এবং অপর এক পুলিশ প্রতিনিধি স্যরিওল সাপটাকে সরানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু তাঁরা ব্যর্থ হন। বিশেষজ্ঞদের পরমার্শ মতোই সাপটিকে প্রায় ঘণ্টা তিনেকের চেষ্টায় উদ্ধার করা হয়।

আরও পড়ুন: বিশ্বের সবচেয়ে বড় এই সুইমিং পুলে নৌকাও চলে!

স্থানীয় রিপোর্টে বলা হয়েছে, সাপ উদ্ধারকারী স্টিভ কেলার চার ফুটের একটা পাইথন ধরে নিজের জিম্মায় রেখেছে। সংবাদ সংস্থা সূত্রে খবর, সাপটি এক জনের পোষা এবং সেখান থেকে পালিয়ে এসে এই কাণ্ড ঘটিয়েছে। ওমরোতে ক্ষতিকর পোষ্য রাখা বেআইনি। ওই ব্যক্তি আর সাপটা ফেরত পাবেন না।

জুন মাসে ভার্জিনিয়ার এক মহিলার গাড়ির ভেন্টেও সাপ পাওয়া গিয়েছিল।

 

(সব গুরুত্বপূর্ণ আন্তর্জাতিক খবর জানতে চোখ রাখুন আমাদের আন্তর্জাতিক বিভাগে।)

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন