Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৬ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

শুধু শিশু নয়, নজরে থাকুক মায়ের স্বাস্থ্যও

পয়লা অগস্ট বিশ্ব মাতৃদুগ্ধ দিবস উপলক্ষে শিশু-সহ অভিভাবকদের নিয়ে আলোচনা সভা হল কোলাঘাট শহরে। ‘ওয়েস্ট বেঙ্গল অ্যাকাডেমি অফ পেডিয়াট্রিক’-এর উদ্

নিজস্ব সংবাদদাতা
তমলুক ০২ অগস্ট ২০১৪ ০২:৪৫

পয়লা অগস্ট বিশ্ব মাতৃদুগ্ধ দিবস উপলক্ষে শিশু-সহ অভিভাবকদের নিয়ে আলোচনা সভা হল কোলাঘাট শহরে। ‘ওয়েস্ট বেঙ্গল অ্যাকাডেমি অফ পেডিয়াট্রিক’-এর উদ্যোগে শুক্রবার সকালে কয়েকশো মা-শিশুদের নিয়ে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা কোলাঘাট শহর পরিক্রমা করে। পরে কোলাঘাটের কাঠচড়া ময়দানে এই বিষয়ের উপরে যেমন খুশি তেমন সাজো প্রতিযোগিতা ও একটি আলোচনা সভা হয়।

সভার উদ্বোধন করেন পূর্ব মেদিনীপুরের জেলাশাসক অন্তরা আচার্য। শিশুদের জন্মের পরেই মাতৃদুগ্ধের প্রয়োজনীয়তার কথা স্মরণ করিয়ে জেলাশাসক বলেন, “শিশুরাই সম্পদ। আগামী প্রজন্মকে মাতৃদুগ্ধ খাওয়ানোর বিষয়ে সব বাবা-মা এবং পরিবারের সদস্যদের সচেতন হতে হবে।” তাঁর কথায়, মাতৃদুগ্ধ না খেলে শিশুদের নানা রোগের উপসর্গ দেখা দেয়। তাই এ বিষয়ে সচেতন না-হলে শিশুদের অপুষ্টির সমস্যা দূর করা সম্ভব হবে না। অন্তরাদেবীর কথায়, “শিশু ও মায়েদের অপুষ্টির হাত থেকে রক্ষা করতে অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রে পুষ্টিকর খাওয়ার দেওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে। তাই শিশু-মায়েদের ওই কেন্দ্রে যাওয়া নিশ্চিত করতে হবে। শিশুজন্মের আগে মায়েদের স্বাস্থ্যের দিকেও নজর দিতে হবে।”

চলতি বছরেই পূর্ব মেদিনীপুরে ৬ বছর বয়স পর্যন্ত অপেক্ষাকৃত কম ওজনের ৩৮২১ শিশুকে চিহ্নিত করা হয়েছিল। তাদের স্বাস্থ্য-পরীক্ষা করে চিকিৎসার সঙ্গে সঙ্গে পুষ্টিকর খাওয়ার দেওয়ার ব্যবস্থা করেছে জেলা প্রশাসন। এ দিনের সভায় ‘ভেলোর খ্রিষ্টান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের’ চিকিৎসক তথা শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ অতনু জানা বলেন, “শিশুদের জন্মের একঘণ্টার মধ্যে মাতৃদুগ্ধ পান করানো উচিত। কিন্তু এ নিয়ে অনেক ভুল ধারনার কারণে শিশুদের মায়ের দুধ খাওয়ানো শুরু করতে দেরি করেন।”

Advertisement

তাঁর কথায়, মায়ের দুধ খাওয়ার পরেও শিশু কাঁদছে বলেই সঠিক পরিমাণ মায়ের দুধ পাচ্ছে না এই ধারনাও ভুল। এ দিনের সভার উদ্যোক্তা ওয়েস্ট বেঙ্গল অ্যাকাডেমি অফ পেডিয়াট্রিকের বিশ্ব মাতৃদুগ্ধ দিবস উদ্যাপন কমিটির সভাপতি তথা বিশিষ্ট শিশু চিকিৎসক প্রবীর ভৌমিক বলেন, “শিশুর জন্মের প্রথম ছয়মাস মায়ের দুধ ছাড়া অন্য কোনও পানীয়, এমনকী জলও দেওয়া উচিত নয়। এ নিয়ে সাধারণ মানুষকে সচেতন করা গেলেই বিশ্ব মাতৃদুগ্ধ দিবস পালন সার্থক হবে।”

পূর্ব মেদিনীপুরের মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক শৈবাল বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, শিশুদের মাতৃদুগ্ধ পান করানো নিয়ে সচেতনতা বাড়াতে জেলার নানা স্থানে সেমিনার, কর্মশালা হচ্ছে। অপুষ্টির শিকার এমন শিশুদের চিকিৎসা-সহ বিশেষ পুষ্টির ব্যবস্থা করতে মুগবেড়িয়ায় নিউট্রিশন রিহ্যাবিলিটেশন সেন্টারও খোলা হয়েছে। এ ছাড়া ভগবানপুর ১ ব্লকেও একটি পাইলট প্রজেক্টের কাজ চলছে।

সভায় বক্তব্য রাখেন ওয়েস্ট বেঙ্গল অ্যাকাডেমি অফ পেডিয়াট্রিকের সম্পাদক শান্তনু ভক্তা, কোলাঘাটের বিধায়ক বিপ্লব রায়চৌধুরী। অনুষ্ঠানে সাঁতারু মাসাদুর রহমান বৈদ্য, বিশিষ্ট অভিনেত্রী সান্ত্বনা বসু, অভিনেতা অরিজিৎ রায়চৌধুরী ও বিশিষ্ট শিশুরোগ বিশেষজ্ঞরা ছিলেন।

আরও পড়ুন

Advertisement