Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০১ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

Covid Recovery: করোনা থেকে সেরে ওঠার সময়ে সাবধানে থাকতে বলছেন চিকিৎসক? কোন কোন খাবার বাদ দেবেন

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৬ জুন ২০২১ ১৯:১৫
করোনা থেকে সেরে ওঠার সময়ে খাবার থেকে বাদ দিতে হবে অতিরিক্ত নুন এবং চিনি।

করোনা থেকে সেরে ওঠার সময়ে খাবার থেকে বাদ দিতে হবে অতিরিক্ত নুন এবং চিনি।
ফাইল চিত্র

করোনা থেকে সেরে ওঠার পর্বটি কঠিন। বিভিন্ন চিকিৎসক বারবার বলছেন, ভাইরাসমুক্ত হওয়ার পরেও অন্তত মাস ছয়েক থাকতে হবে অতি সাবধানে। খাওয়াদাওয়া থেকে ব্যায়াম, সব করতে হবে যত্নের সঙ্গে। যাতে নতুন ভাবে কোনও শারীরিক ক্ষতির আশঙ্কা না থাকে। এ সবের কারণ একটাই। কোভিড আক্রান্ত হলে দেখা যাচ্ছে বহু দিন তার জের থাকছে কারও কারও শরীরে। কারও ফুসফুসে সংক্রমণের ছাপ থাকছে। কারও ক্ষেত্রে আবার উচ্চ রক্তচাপ বা ডায়াবিটিসের মতো পুরনো কোনও শারীরিক সমস্যা বেড়ে যাচ্ছে। ফলে সেরে ওঠার জন্য নিজেকে অনেক সময় দিতে হবে।

পুষ্টিবিদেরা বারবার জানিয়েছেন খাওয়াদাওয়ায় বিশেষ নজর দেওয়ার কথা। যেমন প্রোটিন এবং কার্বোহাইড্রেট বেশি করে খেতে বলছেন অনেকে। তরল পদার্থেও দিতে বলছেন অধিক নজর। তবে শুধু কী কী খাবেন, সে দিকে খেয়াল রাখলেই হবে না। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু) সচেতন করছে এ সময়ে কী খাওয়া ঠিক নয়, সে ব্যাপারেও।

হু-এর সেই নির্দেশিকার সবচেয়ে উপরে রয়েছে মিষ্টি। চিনি বেশি খেলে শরীরে নানা ধরনের ক্ষতির আশঙ্কা যে রয়েছে, তা কারও অজানা নয়। ফলে খেয়াল রাখতে হবে, এ সময়ে ফলের রস, নরম পানীয় বা ইয়োগার্ট, মিষ্টি দইয়ের মতো খাবারের সঙ্গে যেন অতিরিক্ত চিনি না ঢোকে শরীরে। বাদ দেওয়া ভাল কেক, পেস্ট্রি, কুকিজ জাতীয় খাবারও। এর পাশাপাশি, নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে নুন খাওয়া। ভাতের সঙ্গে কাঁচা নুন একেবারেই বাদ দিতে হবে। বোকলবন্দি সস্‌ বা চিপসের মতো প্যাকেটবন্দি খাবারে অনেক পরিমাণ নুন থাকে। তা খাওয়া চলবে না।

Advertisement

চিকিৎসকেরা এ সময়ে বেশি পরিমাণ তরল পদার্থ খেতে বলেন। তার মানে এই নয় যে, যেমন ইচ্ছা মদ্যপান করা যাবে। এ সময়ে অ্যালকোহল জাতীয় জিনিস শরীরে না ঢুকতে দেওয়াই ভাল। বাদ দেওয়া ভাল কফিও। দুর্বল শরীরের ক্যাফেনের প্রভাব ঠিক নয় বলেই মত বেশির ভাগ চিকিৎসকের। এমনকি, বোতলবন্দি লস্‌সি, সিরাপেও অনেক বেশি চিনি থাকে। সে সবও এড়িয়ে চলতে হবে।

তেলের পরিমাণ কম করা জরুরি। ফলে কম তেলের হাল্কা খাবার খেতে হবে। চিকিৎসকেরা প্রোটিন খেতে বলছেন। তবে অতিরিক্ত তেল-মশলা দিয়ে মাছ-মাংস রান্না করে খাওয়া চলবে না। যথা সম্ভব ভাজাভুজিও ত্যাগ করতে হবে বেশ কয়েক মাসের জন্য।

কোভিড থেকে সেরে ওঠার পরে অন্তত মাস ছয়েক এ ভাবেই চলার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞেরা।

আরও পড়ুন

Advertisement