Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৫ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

Diet: খাবারের তালিকা থেকে ভাত-রুটি একদম বাদ দিচ্ছেন? সতর্ক থাকবেন কোন কোন বিষয়ে?

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১০ জুলাই ২০২১ ১৬:৩৯
শুধুই প্রোটিনে ভরসা?

শুধুই প্রোটিনে ভরসা?
ছবি: সংগৃহীত

করোনাকালে বাড়ি থেকেই যেহেতু যাবতীয় কাজ সারতে হচ্ছে, তাই অতিরিক্ত ওজন বেড়ে যাওয়ার একটা প্রবণতা দেখা দিচ্ছে। অনেকেই স্বাস্থ্য সচেতন হয়েছেন। নিয়মিত শরীরচর্চা করছেন। অহেতুক মেদ জমলে কার ভাল লাগে! শরীরের মেদ ঝরাতে কেউ কেউ আবার রোজকার খাদ্যতালিকা থেকে শর্করা বা কার্বোহাইড্রেটের পরিমাণ কমিয়ে দিয়েছেন। তুলনায় স্বাস্থ্যকর প্রোটিন ও ফ্যাট বেশি পরিমাণে খাচ্ছেন। আপনিও কি এই ধরনের খাদ্যাভ্যাসে রয়েছেন? তা হলে কয়েকটি বিষয় জানা জরুরি।

ডায়েটের তালিকা তৈরি করুন

Advertisement

কেউ কেউ কার্বোহাইড্রেট একেবারেই বাদ দিয়ে দেন, এটা একেবারেই ঠিক নয়। এই রকম যাতে না ঘটে, তার জন্য একটি ডায়েট তালিকা আগে তৈরি করে নিন। ধরা যাক, জলখাবারে প্রোটিনের সঙ্গে পছন্দের ফল এবং দুধ রাখলেন। দুপুরের খাবার ও রাতের খাবারের জন্য রুটি কিংবা সবজি ভাজা রাখুন।

সময় বুঝে শর্করাও খান

‘কার্ব রিফিডিং’ কথাটা খুব জনপ্রিয় কিটো এবং পেলিও জাতীয় খাদ্যাভ্যাসের জন্য। এই উপায়ে ডায়েটে থাকা অবস্থাতেই মাঝে মাঝে সময় অনুযায়ী খাদ্যতালিকায় শর্করাও রাখা হয়। শরীরে প্রোটিন ও কার্বোহাইড্রেটের ভারসাম্য থাকাটাও খুব দরকারি।

পরিশোধন করা শর্করা বাদ দিন

শরীরে প্রয়োজনের জন্য যেমন উপকারী কার্বোহাইড্রেট রাখছেন, তেমনই অপ্রয়োজনীয় পরিশোধিত কার্বোহাইড্রেট খাবারের তালিকা থেকে একেবারেই বাদ দিন। বিস্কুট, পাস্তা, পাঁউরুটি, সোডা ওয়াটার ইত্যাদি একেবারেই খাদ্যতালিকা থেকে বাদ দিন।

কিটো করবেন কি?

কিটো ভীষণই জনপ্রিয় খাদ্যাভ্যাস। এতে কার্বোহাইড্রেটের পরিমাণ খুব কম থাকে এবং ফ্যাটের পরিমাণ বেশি থাকে। কম পরিমাণে কার্বোহাইড্রেট খেলে শরীর শক্তি উৎপাদনের জন্য নিজে থেকেই মেদ ঝরাতে শুরু করে। এই খাদ্যাভ্যাস করার আগে ঠিক ভাবে পুষ্টিবিদের পরামর্শ নিয়ে এগনোই ভাল।

শর্করার বদলে খেতে পারেন বাদাম।

শর্করার বদলে খেতে পারেন বাদাম।


যথাযথ খাবার খান

বেশি পরিমাণে জল খান, যাতে শরীর আর্দ্র থাকে। প্রচুর সবুজ শাকসবজি রাখুন খাবারের তালিকায়। এতে ফাইবারের পরিমাণ বেশি থাকায় পাকস্থলির স্বাস্থ্য ভাল রাখে। মুরগির মাংস, ডিম, পাঁঠার মাংস খান নিয়ম মেনে। এই ধরনের খাদ্যাভ্যাসে পনির, চিজ, মাখন, বাদাম ইত্যাদি রাখা জরুরি। যে কোনও খাদ্যাভ্যাসের ক্ষেত্রে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সংযম। এটা মেনে চলুন।

আরও পড়ুন

Advertisement