ভারতীয় রান্নাঘরে ঢ্যাঁড়শ খুবই পরিচিত সব্জি। ভিটামিন ও খনিজ পদার্থে ঠাসা ঢ্যাঁড়শে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ ফাইবার। খুব কম ফ্যাট থাকায় ওজন কমানোর ডায়াটে এই সব্জি রাখার পরামর্শ দেন পুষ্টিবিদরা।

১০০ গ্রাম ঢ্যাঁড়শে ফ্যাটের পরিমাণ মাত্র ০.১৯ গ্রাম। শুধু কম ফ্যাট বলেই নয়, ১০০ গ্রাম ঢ্যাঁড়শ থেকে মেলে অনেকটা ক্যালোরিও। তাই ‘লো ফ্যাট ডায়েট’-এ ঢ্যাঁড়শের বিশেষ ভূমিকা অস্বীকার করা যায় না।

শুধু ওজন নিয়ন্ত্রণই নয়, এই সব্জি খাওয়ার উপযোগীতা আরও অনেক। কেন খাবার পাতে এই সব্জি রাখতে হবে জানেন? দেখে নিন তার বিশেষ কয়েকটি কারণ।

আরও পড়ুন: জ্বর-সর্দি-কাশির ভয়? ওষুধ ছাড়াই সুস্থ থাকুন এ সব খাবারে

গর্ভাবস্থায় সামান্য সমস্যাতেও সতর্ক থাকুন

  • ঢ্যাঁড়শে রয়েছে প্রচুর ফাইভার।  ফাইবারের প্রাচুর্য দীর্ঘ সময়ের জন্য পেট ভরিয়ে রাখে। সহজে খিদে পায় না। এটি রক্তে ​​শর্করার মাত্রাও দ্রুত গতিতে বাড়িয়ে তোলে না।
  • এই সব্জির গ্লাইসেমিক সূচক কম। তাই রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে। ‘আমেরিকান ডায়াবিটিস অ্যাসোসিয়েশন’-এর মত অনুযায়ী, হাই ক্যালোরি, লো ফ্যাটের এই সব্জি ডায়াবিটিকদের জন্য খুবই উপকারী।
  • এই সব্জির আরেকটি বৈশিষ্ট্য— এটি হজম ক্ষমতা বাড়ায়। পাকস্থলির সুস্থতা বাড়াতেও এটি খুব কার্যকর।