• সুমা বন্দ্যোপাধ্যায়
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পাতা, ডাঁটা, ফুল...এ গাছের এত গুণ!

moringa
রোজের খাবারে এই শাক থাকলে রোগ থাকবে দূরে। ছবি: শাটারস্টক

নিরামিষ শুক্তো হোক বা চচ্চড়ি কিংবা বাঙালির প্রিয় মাছের ঝোল, অথবা দক্ষিণী সম্বর ডাল সবেতেই স্বচ্ছন্দে বিচরণ এই সবজির। সজনে ডাঁটা। তবে শুধু ডাঁটা নয় সজনে গাছের পাতা থেকে ফুল এসবই অত্যন্ত উপকারি খাবার। গরমের শুরুতে কয়েক দিনের জন্যে বাজারে সজনে ফুল পাওয়া যায়। এর পরে পরেই আসে ডাঁটা। আর পাতা, সে তো অফুরান, বছরভর। করোনার অতিমারির সময় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে রোজই খেতে পারেন সজনে ডাঁটা আর শাক।

শাকের নামে নাক কুঁচকালেও অনলাইনে অর্ডার দিয়ে অনেক স্বাস্থ্য সচেতন মানুষই যে মোরিঙ্গা পাউডার কিনে খান তা আসলে সজনে পাতা শুকিয়ে গুঁড়ো করে প্যাকেটজাত করা। ভিটামিন, মিনারেলস আর অ্যান্টি অক্সিড্যান্টের খনি সজনে গাছের পাতা, ফুল ও ডাঁটা, বলছিলেন নিউট্রিশনিস্ট ইন্দ্রাণী ঘোষ।

প্রোটিন, ফাইবার, ক্যালসিয়াম, আয়রন, জিঙ্ক, ভিটামিন এ, ভিটামিন বি-১, বি-২, ভিটামিন সি, ম্যাগনেসিয়াম, পটাসিয়াম কী নেই সজনে ডাঁটা, ফুল আর পাতায়। অ্যান্টি অক্সিড্যান্টে ভরপুর সজনে পাতা আর ডাঁটা করোনা আর ডেঙ্গি ভাইরাসের সঙ্গে লড়াই করে তাদের দমিয়ে রাখতে সাহায্য করে বললেন ইন্দ্রাণী দেবী।

আরও পড়ুন: বয়স কম? কো-মর্বিডিটি নেই? তাতেও কি করোনা থেকে আপনার ভয় কম?​

তবে ডায়েটে সজনে আছে বলে মাস্ক খুলে যত্রতত্র ঘুরে বেড়ানো বা ভিড় জায়গায় যাওয়া চলবে না আর হাত ধোওয়ার বিধিও মেনে চলতে সতর্ক করেন ইন্দ্রাণী ঘোষ। ভাবছেন পাতা খাবেন কী উপায়ে? সজনে পাতা ভাল করে ধুয়ে নিয়ে ছাড়িয়ে সুপ, ডাল, ঝোল বা চচ্চড়ি সবেতেই মিশিয়ে নিতে পারেন। এমনকি  নুডলস, চাউমিন ও পাস্তায় মেশালেও মন্দ হবে না। সজনে ডাঁটা দিয়ে পোস্ত খেতে কে না ভালবাসে।

কী গুণ রয়েছে এতে?

আরও পড়ুন: ‘ফেল’ নয়, ‘এসেনশিয়াল রিপিট’, সিবিএসই বোর্ডের সিদ্ধান্তে প্রভাব পড়বে পড়ুয়া মনস্তত্ত্বে?​

১. একটি কমলালেবুর সমপরিমাণ সজনে পাতায় পাবেন ৭ গুণ বেশি ভিটামিন-সি।

২. এক কাপ সজনে পাতা ও দুধের তুলনা করলে দুধের ৪ গুণ বেশি ক্যালসিয়াম এবং দ্বিগুণ বেশি প্রোটিন পাবেন এই হেলাফেলায় বেড়ে ওঠা গাছের পাতায়।

আরও পড়ুন: খাদ্যতালিকায় রাখতেই হবে চিনাবাদাম, জেনে নিন কতটা আর কী ভাবে খাওয়া উচিত

৩. চোখ ভাল রাখতে গাজর উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নেয় তা আমাদের সকলেরই জানা। সমপরিমাণ গাজরের থেকে ৪ গুণ বেশি ভিটামিন-এ  আছে এই পাতায়, হাই ব্লাড প্রেশার থাকলে কোভিড ১৯ মারাত্মক রূপ নিতে পারে।

সজনে ফুল বাড়ায় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা। ছবি: শাটারস্টক 

৪. উচ্চ রক্তচাপ থাকলে পটাশিয়াম যুক্ত খাবার খেলে ভাল থাকা যায়। সজনে ডাঁটা ও পাতায় কলার ৩ গুণ পটাশিয়াম থাকে।

৫. এক চামচ শুকনো সজনে পাতার গুঁড়ো থেকে ১৪% প্রোটিন, ৪০% ক্যালসিয়াম, ২৩% আয়রন ও ভিটামিন-এ পাওয়া যায়।

৬. সজনে ফুল এখন পাওয়া না গেলেও সজনে ডাঁটা অগাস্ট-সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত পাওয়া যায়। অবশ্য দক্ষিণ ভারতেসারা বছর সজনে ফুল ও ডাঁটা পাওয়া যায়। তবে বাঙালি ছাড়া অন্য কেউই ফুল খান না।

৭. সজনে ফুল ও পাতায় থাকা আইসোথিয়োকাইনেটস নামক এক অ্যান্টি অক্সিড্যান্ট ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধ করার পাশাপাশি হজমের সমস্যার সমাধান করতে পারে।

৮. রক্তচাপ ও রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকায় নেয় সজনে ফুল, ডাঁটা ও  পাতা। সপ্তাহেও দু তিন দিন খেতে পারলে অনেক সমস্যার হাত থেকে রেহাই পাবেন।

৯. করোনা আর ডেঙ্গি আবহে বাড়বে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা। অ্যাজমা বা হাঁপানি থাকলে যতদিন পাওয়া যায় সজনে ফুল সেদ্ধ করে খেলে রোগ নিয়ন্ত্রণে থাকে।

রোজের ডায়েটে এই ডাঁটা থাকুক। ছবি: শাটারস্টক 

১০. সজনে পাতা ভাল করে পরিষ্কার করে মিক্সিতে বেটে অল্প সৈন্ধব নুন মিশিয়ে খেলে পেটের সমস্যা ও হজম সংক্রান্ত গোলমালের হাত থেকে রেহাই পাওয়া যায়।

১১. করোনার মহামারির সময় ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়তে রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা জোরদার করা দরকার। এই সময় প্রতিদিন সজনে ডাঁটা ও সজনে পাতা রান্নায় ব্যবহারে করলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়বে।

১২. ডাল, চচ্চড়ি, বা যে কোনও তরকারিতে অল্প করে সজনে পাতা দিলে স্বাদ ভাল হবে, বাড়তি পুষ্টিও মিলবে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন