Advertisement
০৭ অক্টোবর ২০২২
Houseplants

Poisonous Houseplants: বাড়িতে কি পোষ্য কুকুর রয়েছে? ভুলেও যে গাছগুলি ঘরে রাখবেন না

নানা রকম গাছ দিয়ে ঘর সাজাতে পছন্দ করেন অনেকেই। কিন্তু বাড়িতে কুকুর বা বিড়াল থাকলে কিছু গাছের ক্ষেত্রে সাবধান হওয়া উচিত।

বাড়িতে পোষ্য থাকলে জেনে নিন কোন কোন গাছ রাখা বিপজ্জনক।

বাড়িতে পোষ্য থাকলে জেনে নিন কোন কোন গাছ রাখা বিপজ্জনক। ছবি: সংগৃহীত

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০১ নভেম্বর ২০২১ ২০:৩০
Share: Save:

বাড়ির বারান্দায় প্রচুর গাছ? ঘরের ভিতরেও অনেকেই নানা রকম গাছ রাখেন সাজানোর জন্য। বেশির ভাগ গাছই ঘরে রাখা ভাল। বাতাস পরিশুদ্ধ করতে, নানা রকম পোকামাকড় দূরে রাখতে এবং মানসিক চাপ কমাতে বেশির ভাগ গাছ সাহায্য করে। কিন্তু অনেকেই হয়তো জানেন না, বাড়ির পোষ্যদের জন্য কিছু গাছ বেশ ক্ষতিকর। কিছু গাছ যদি আপনার অজান্তেই পোষ্যের শরীরে চলে যায়, তা হলে তার প্রভাব মারাত্মক হতেই পারে। তাই বাড়িতে গাছ আনার আগে জেনে নিন, কোন কোন গাছ রাখলে বাড়তি সতর্কতার প্রয়োজন।

১। অ্যালো ভেরা

অ্যালো ভেরা গাছ ত্বক এবং পেটের জন্য দারুণ উপকারী। কিন্তু সেটা শুধু মানুষের ক্ষেত্রেই। বিড়াল-কুকুরদের জন্য এই গাছ অত্যন্ত ক্ষতিকর হয়ে যেতে পারে। অ্যালো ভেরার জেল কুকুরের পেটে গেলে তেমন ভয়ের কারণ নেই। কিন্তু গাছের বাকি অংশ কুকুরদের জন্য ভাল নয়।

২। পিস লিলি

লিলি অনেক জাতের হয়। সব রকম লিলি কুকুর-বিড়ালদের জন্য ক্ষতিকর না হলেও কিছু পিস লিলি কুকুরদের জন্য বেশ ক্ষতিকর। তেমনই ইস্টার লিলি বিড়ালদের পক্ষে বেশ ক্ষতিকর। সময়ে চিকিৎসা না করলে বিড়ালের কিডনি এবং লিভার নষ্ট করে দিতে পারে এই জাতের ফুলের গাছ।

৩। আইভি

পয়জন আইভি গাছের কথা সকলেই জানেন। কিন্তু সাধারণ আইভিও কুকুরদের গায়ে র‌্যাশ তৈরি করতে পারে। এমনকি, তাদের শ্বাস-প্রশ্বাসে অসুবিধা সৃষ্টিও হতে পারে।

মানি প্ল্যান্ট কুকুরদের পক্ষে  ক্ষতিকর।

মানি প্ল্যান্ট কুকুরদের পক্ষে ক্ষতিকর। ছবি: সংগৃহীত

৪। জেড

জেড গাছ দেখতে খুবই সুন্দর। ঘরে অনেকেই সাজিয়ে রাখেন। কিন্তু কুকুরদের পেটে গলে তাদের বমি শুরু হয়ে যায়। পাশাপাশি কুকুরদের মধ্যে অবসাদও ডেকে আনতে পারে এই গাছ।

৫। মানি প্ল্যান্ট (পথোস)

ঘরে মানি প্ল্যান্ট রাখার চল রয়েছে অনেক বাড়িতেই। যেহেতু এই গাছের পরিচর্যা তেমন কঠিন নয়, তাই বেশির ভাগ মানুষ ঘরের নানা কোণে এই লতানো গাছ লাগিয়ে থাকেন। কিন্তু কুকুর-বিড়ালদের জন্য এই গাছ যথেষ্ট ক্ষতিকর। মুখে সমস্যা হয়, ঢোক গিলতে অসুবিধা হয় এবং বমি হওয়ার প্রবণতা তৈরি হয়।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.