Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৬ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

এ বার স্মার্টফোনে জানা যাবে স্পার্ম কাউন্ট!

মহিলাদের প্রেগন্যান্সি টেস্টের মতোই এ বার পুরুষরাও বাড়িতে বসেই স্পার্ম কাউন্ট করতে পারবেন। এর জন্য চিকিত্সকের কাছে দৌড়তে হবে না। এ কাজে সা

সংবাদ সংস্থা
২৬ মার্চ ২০১৭ ১২:২২
প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

মহিলাদের প্রেগন্যান্সি টেস্টের মতোই এ বার পুরুষরাও বাড়িতে বসেই স্পার্ম কাউন্ট করতে পারবেন। এর জন্য চিকিত্সকের কাছে দৌড়তে হবে না। এ কাজে সাহায্য করবে আপনারই স্মার্টফোন। আর এতে গোপনীয়তাও বজায় থাকবে।

বিশ্বাস হচ্ছে না তো? কিন্তু এমনটাই দাবি করছেন হার্ভার্ড মেডিক্যাল স্কুলের এক দল বিজ্ঞানী। নতুন প্রযুক্তির উপর পরীক্ষাও চালিয়েছেন তাঁরা। তাঁদের দাবি, ৯৮ শতাংশ সঠিক এই টেস্টটি। সময় লাগবে মাত্র পাঁচ সেকেন্ড। আর এর জন্য কোনও প্রশিক্ষণেরও প্রয়োজন হবে না।

কী ভাবে এই টেস্টটি হবে?

Advertisement

বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, এই টেস্টের জন্য সফটওয়্যার ও হার্ডওয়্যার দু’টোরই ব্যবহার হয়েছে। স্পার্ম স্যাম্পল সংগ্রহ করার জন্য একটি ডিসপোজেবল কিট ও চিপের সাহায্য নেওয়া হবে। সেই স্পার্ম স্যাম্পলকে চিপের মধ্যে রাখা হবে। তার পর সেই চিপটাকে একটা অ্যাক্সেসরিজের মধ্যে ঢুকিয়ে দেওয়া হবে। ওই অ্যাক্সেসরিজটা দেখতে অনেকটা একটা আয়তাকার খাপের মতো। সেটাকে আপনার স্মার্টফোনের পিছনে লাগিয়ে দিতে হবে।



বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, ওই অ্যাক্সেসরিজের মধ্যে একটি লেন্স ও এলইডি রয়েছে যা স্পার্ম স্যাম্পলটাকে ম্যাগনিফাই করতে সাহায্য করবে যাতে ফোনের ক্যামেরা সেই স্যাম্পলের ছবি তুলতে পারে।

এই প্রযুক্তির মাধ্যমে চিপের মধ্যে সংগৃহীত স্পার্মের চলাফেরার একটি ভিডিও রেকর্ড হবে। সেখান থেকেই স্পার্ম সংখ্যা চিহ্নিত করে ওই প্রযুক্তির সাহায্যে আপনাকে জানিয়ে দেবে স্মার্টফোন।

আরও পড়ুন: বেশির ভাগ ক্যানসারের জন্য দায়ী খারাপ ‘ভাগ্য’, দাবি বিজ্ঞানীদের

সারা বিশ্বে ইনফার্টিলিটি বেশ ভয়ঙ্কর আকার ধারণ করতে চলেছে। সমীক্ষা করে দেখা গিয়েছে, ২০১০ সারা বিশ্বে ইনফার্টিলিটির সমস্যায় ভুগছেন ৪ কোটি ৫০ লক্ষ দম্পতি। যা বিশ্বের মোট দম্পতির ১৫ শতাংশ। সংখ্যাটা বেশ উদ্বেগজনক বলে মনে করছেন বিজ্ঞানীরা।

বিজ্ঞানীরা আশা করছেন, এই নতুন প্রযুক্তি যদি সফল হয়, তা হলে আগামী দিনে পুরুষদের ক্ষেত্রে ইনফার্টিলিটি পরীক্ষা করা অনেক সহজ ও সস্তা হবে। এর জন্য চিকিত্সকের কাছে ছুটে যেতে হবে না।

আরও পড়ুন

Advertisement