Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৪ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

Skincare: রাত পড়তেই যত গোলমাল! ত্বকের যত্নে ফাঁকি পড়ে যাচ্ছে না তো

দিনেরবেলা আমরা ত্বকের যে ভাবে যত্ন নিই, রাতে তার তুলনায় নিময়টা একটু বদলে যায়। কিন্তু অনেকেই সেই দিকে খুব একটা খেয়াল করেন না।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১৪ জুন ২০২১ ১৫:৩৫
Save
Something isn't right! Please refresh.
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।
ছবি: সংগৃহিত

Popup Close

দিনেরবেলা কী ভাবে ত্বকের যত্ন নিতে হবে তা মোটামুটি অনেকেই জানেন। ক্লিনজিং-টোনিং-ময়েশ্চারাইজিংয়ে পাঠ অনেকদিন থেকেই পড়ে আসছেন মেয়েরা। সঙ্গে সানস্ক্রিন লাগানো উচিত, তাও সকলের জানা। কিন্তু রাতের বেলা এই রূপচর্চার নিয়মগুলো খানিক বদলে যায়। এবং অনেকেরই সেগুলো অজানা। তাই না চাইতেই বেশ কিছু ভুল-ভ্রান্তি করে ফেলেন বেশির ভাগ মানুষ।

খুব বেশি ঘষাঘষি

রাতে ঘুমনোর আগে মেকআপ তুলছেন? খুব ভাল অভ্যাস। কিন্তু তোলার সময় তুলো দিয়ে খুব জোরে ঘষাঘষি করবেন না। তাতে ত্বক আরও স্পর্শকাতর হয়ে উঠবে। তাতে অ্যাকনের সমস্যা বেড়ে যেতে পারে। অয়েল বেস্‌ড ক্লিনজার ব্যবহার করতে পারেন। সে ক্ষেত্রে আঙুলের ডগা দিয়ে আলতো করে ম্যাসাজ করে মেকআপ তুলতে হবে। হয়ে গেলে কোনও হালকা ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। যদি মাইসেলার ওয়াটার দিয়ে মেকআপ তোলেন, তা হলে তুলোটা মাইসেলার ওয়াটারে ডুবিয়ে কয়েক সেকেন্ড মুখের একেকটা অংশে (চোখ, ঠোঁট-গাল— যেখানে মেকআপ বেশি) ধরে থাকতে হবে। তারপর মুছে ফেলতে হবে একবারেই।

Advertisement

মুখ না ধুয়ে শুয়ে পড়া

অনেকে মেকআপ রিমুভার দিয়ে মেকআপ তুলেই ভাবেন সব কাজ শেষ। কিন্তু তা নয়। মেকআপ উঠলেও রিমুভারে নোংরা ওঠে না। তাই মেকআপ তোলার পর কোনও ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ধুতেই হবে। সারাদিন বাড়ি থেকে কোথাও বেরননি? মেকআপও করেননি? তা-ও মুখ ধোওয়া প্রয়োজন। সারাদিনের তেল, ঘাম, নোংরা জমে থাকলে ত্বকের কোষ আটকে যেতে পারে। এবং তার থেকেই হবে অ্যাকনে।

রেটিনল ব্যবহার না করা

দিনের সিরাম আর রাতের সিরাম এক নয়। দিনেরবেলা যদি ভিটামিন সি সিরাম লাগান, তা হলে রাতে ব্যবহার করতে হবে রেটিনল সল্যিউশন। এই ধরনের সিরাম রাতে আপনি যখন ঘুমিয়ে থাকবেন, তখন কাজ করে। সারাদিনের ক্লান্তি মুছে, পুরনো মৃত কোষের জায়গায় ত্বকের নতুন কোষ তৈরির কাজে সাহায্য করে। তারুণ্য ধরে রাখতে এই ধরনের সিরাম কার্যকরী।

অধৈর্য হয়ে পড়া

রেটিনল বা অন্য ধরনের স্লিপিং প্যাক ত্বকে যে বদল আনে, তা বুঝতে দীর্ঘ সময় লেগে যায়। ১ সপ্তাহ লাগালে কোনও ফারাক বুঝবেন না। ১ মাস লাগে অ্যাকনের সমস্যা মিটতে, ৩ মাস কালচে দাগ-ছোপ দূর করতে এবং প্রায় ৬ মাস লাগে বলিরেখা মেলাতে। অনেক সময় মাঝ পথেই ধৈর্য হারিয়ে মানুষ এগুলো ব্যবহার করা ছেড়ে দেন। কিন্তু অত অধৈর্য হয়ে পড়লে চলবে না। নিয়মিত যত্ন করে যেতে হবে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement