সোফায় বা চেয়ারে বসেও পায়ের উপর পা তুলে বসা আমাদের অনেকের স্বভাব। আরামের কারণেই দীর্ঘ ক্ষণ এ ভাবে বসে থাকাকে রপ্ত করে ফেলি আমরা। কিন্তু চিকিৎসকদের মতে, এই ভাবে বসে থাকার অভ্যাস আদতে শরীরের ক্ষতি করে।

অস্থি ও স্নায়ুর রোগ তো বটেই, এমন করে বসে থাকার অভ্যাস ডেকে আনতে পারে হৃদরোগের সম্ভাবনাও। অস্থিবিশেষজ্ঞ অমিতাভ নারায়ণ মুখোপাধ্যায়ের মতে, এই ভাবে বসে থাকতে থাকতে শরীরের হাড়ের ভারসাম্য নষ্ট হয়। পেশীগত নানা সমস্যারও জন্ম হয়।
জেনে নিন এমন করে বসে থাকার ফলে কী কী ক্ষতি হতে পারে শরীরে।

আরও পড়ুন

বাসি চিকেন কিনছেন না তো! বুঝবেন কী করে?

বেশির ভাগ সময় এসি-তে থাকেন? এ সব অসুখের শিকার হচ্ছেন না তো?​

  • দীর্ঘ ক্ষণ এ ভাবে বসে থাকলে উরু ও জঙ্ঘার পেশী ক্ষতিগ্রস্ত হয়। উরুর ভিতরের অংশের পেশী আকারে ছোট হয়ে যায়। বাইরের পেশীর সঙ্গে আকারে অসামঞ্জস্য আসায় পায়ে ব্যথা, পেশীতে টান, এমনকি স্নায়ুর নানা অসুখেরও শিকার হতে পারেন।
  • এই বসার কায়দা শরীরে রক্তচাপ বাড়ায়। স্নায়ুর উপরেও তা প্রভাব ফেলে। পরীক্ষায় দেখা গিয়েছে রক্তচাপজনিত এই ভাবে বসেন যাঁরা, তাঁরা রক্তচাপজনিত অসুখে ভোগেন বেশি। 
  • প্রায় পা ক্রস করে বসলে শরীরে স্বাভাবিক রক্ত চলাচল বাধা পায়। রক্তচাপের ভার হার্টের উপর চাপ ফেলে। ফলে হৃদরোগের সম্ভাবনাও বাড়ে।
  • অমিতাভবাবুর মতে, এ ভাবে বসে থাকলে কোমর ও নিতম্বের হাড়ে ব্যথা হয়। পেলভিক বোনের সমস্যা থেকে মানুষ ধীরে ধীরে কুঁজো পর্যন্ত হয়ে যেতে পারে।