ভোট মিটতে না মিটতেই ঝাড়খণ্ডের সরাইকেলা-খরসওয়া জেলার সিন্দিরির জঙ্গলে হামলা চালালো মাওবাদীরা। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, সিন্দিরির পাহাড়ি রাস্তায় মাওবাদীদের পাতা ইমপ্রোভাইসড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস (আইইডি)-র ধারাবাহিক বিস্ফোরণে সিআরপিএফের কোবরা বাহিনী ও ঝাড়খণ্ড সশস্ত্র পুলিশের মোট ১৬ জন জখম হয়েছেন। তার মধ্যে গুরুতর জখম ৭ জন। আহতদের সবাইকে হেলিকপ্টারে করে রাঁচীর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার ভোর সাড়ে চারটে নাগাদ যৌথ বাহিনী ওই এলাকায় টহলদারি চালাচ্ছিল। ছিল ঝাড়খণ্ড পুলিশের জাগুয়ার বাহিনীর একটি দলও। হঠাৎই জঙ্গলের রাস্তায় আইইডি বিস্ফোরণ হয়। তদন্তকারীদের সন্দেহ, জঙ্গলের কাঁচা রাস্তায় একাধিক আইইডি বিস্ফোরক জঙ্গিরা পুঁতে রেখেছিল। বিস্ফোরণে টহলদার গাড়িগুলো রাস্তা থেকে ছিটকে যায়। বিস্ফোরণের পর পরই জওয়ানদের লক্ষ্য করে জঙ্গলের মধ্যে থেকে জঙ্গিরা গুলি চালাতে শুরু করে। শুরু হয় দু’পক্ষের গুলিযুদ্ধ। প্রায় আধঘন্টা গুলির লড়াইয়ের পর জঙ্গিরা পালায়। জেলার এসপি চন্দন সিংহ জানিয়েছেন, এ দিন রুটিন তল্লাশি চালানোর সময়েই এই হামলা।

ঝাড়খণ্ডে ভোট শুরুর আগে পলামু জেলায় বিজেপির একটি অফিস বাড়িতে বিস্ফোরণ ঘটায় মাওবাদীরা। কেউ হতাহত না হলেও ভোটের মধ্যে আর যাতে কোনও জঙ্গি-নাশকতা না ঘটে সে জন্য সতর্ক হয় প্রশাসন। এ বার ভোট শেষে ফের মাওবাদী হামলায় চিন্তিত রাজ্য প্রশাসন।