মোবাইলে পর্নোগ্রাফি দেখিয়ে আট বছরের এক বালিকাকে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠল তিন নাবালকের বিরুদ্ধে। ধর্ষণে অভিযুক্ত ওই নাবালকদের বয়স যথাক্রমে ৮, ১০ এবং ১২ বছর। সম্প্রতি ঘটনাটি ঘটেছে রাজস্থানের শ্রীগঙ্গানগরে।

অত্যাচারিত বালিকা ওই নাবালকদের প্রতিবেশী বলে জানিয়েছে পুলিশ। তাদের দাবি, বেশ কয়েক দিন আগে ওই নাবালকরা একসঙ্গে খেলছিল। সেই সময় ওই বালিকা-সহ অন্য দু’জনকে নিজের বাড়িতে ডেকে নিয়ে যায় ১২ বছরের অভিযুক্ত। সেখানে সে মোবাইলের পর্নোগ্রাফি দেখিয়ে ওই বালিকাকে ধর্ষণ করে।

বাড়ি ফিরে মা-কে পেটে যন্ত্রণার কথা জানায় ওই বালিকা। তখন তাকে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যান তার মা। সেখানেই গোটা বিষয়টি সামনে আসে। অত্যাচারিত মেয়েটির কাছে জানতে চাওয়া হলে সে ধর্ষণের কথা স্বীকার করে। তার পরেই শ্রীগঙ্গানগর মহিলা পুলিশ স্টেশনে অভিযোগ জানান তার মা। 

বালিকার মায়ের অভিযোগের ভিত্তিতে ওই তিন নাবালককে গ্রেফতার করা হয়েছে। আদালতে তোলার পর তাদের জুভেনাইল রিফর্ম হোমে রাখা হয়েছে বলে পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে। শ্রীগঙ্গানগর সিটি সার্কেলের ডেপুটি পুলিশ সুপার ইসমাইল খান জানিয়েছেন, অভিযুক্ত ওই তিন নাবালক সদর পুলিশ স্টেশন এলাকার বাসিন্দা। তাদের মধ্যে একজন পর্নোগ্রাফিতে আসক্ত বলেও তদন্তে জানা গিয়েছে। সেই নাবালকই আরও দু’জন বন্ধুকে প্রলোভিত করে মেয়েটির উপর অত্যাচার চালিয়েছে বলে প্রাথমিক তদন্তে জানতে পেরেছে পুলিশ। 

আরও পড়ুন: ব্যস্ত রাস্তায় চলন্ত বাইকে চুম্বন যুগলের, ভাইরাল ভিডিয়ো

আরও পড়ুন: বিয়ে করে অখুশি, প্রেমিকের সাহায্যে স্বামীকে খুন করাল স্ত্রী!