৩৬ একর, অর্থাৎ ৯০ বিঘা কৃষিজমি। আর সেই জমি নিয়ে বিবাদের জেরে গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু হল ন’জনের। আহত আরও ১৯ জন। মৃতদের মধ্যে তিন জন মহিলা। বুধবার উত্তরপ্রদেশের সোনভদ্র জেলার উভা গ্রামে ঘোরাওয়াল এলাকায় ঘটনাটি ঘটে।

পুলিশ সূত্রে খবর, এই বিপুল পরিমাণ জমি প্রথমে এক জন আইপিএস অফিসারের ছিল। দু’বছর আগে তিনি এই জমি বিক্রি করেন গ্রামপ্রধান যজ্ঞ দত্তকে। বুধবার তিনি ও তাঁর সঙ্গীরা ১০-১২টি ট্রাক্টর নিয়ে জমিটির দখল নিতে গেলে গ্রামবাসীরা তাঁদের বাধা দেন। স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে গ্রামপ্রধান ও তাঁর সঙ্গীদের বিবাদ চরমে উঠলে হঠাৎই গ্রামপ্রধানের সঙ্গীরা আগ্নেয়াস্ত্র বার করে তাঁদের উপর এলোপাথারি গুলি ছুড়তে শুরু করেন বলে অভিযোগ।

উত্তরপ্রদেশ পুলিশের ডিজি ও পি সিংহ সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন, ‘‘আচমকা নিরস্ত্র গ্রামবাসীদের উপর গুলি চলায় তাঁরা ঘটনার আকস্মিকতায় হতভম্ব হয়ে যান। প্রাণ বাঁচাতে এ দিক-ও দিক ছুটোছুটি করতে থাকেন। গুলিতে ঘটনাস্থলেই লুটিয়ে পড়েন কয়েক জন। গুলিতে প্রাণ যায় তিন মহিলা-সহ নয় জনের।’’

আরও পড়ুন: অখিলেশ শিবির থেকে বিজেপিতে আরও দুই রাজ্যসভার সাংসদ? জল্পনা তুঙ্গে

বিহারে আরএসএসকে নিয়ে ‘রিপোর্ট’ পুলিশের, ক্ষুব্ধ বিজেপি

পুলিশ সূত্রে খবর, এই ঘটনায় গ্রামপ্রধানের দুই ভাইপোকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিদের খোঁজেও শুরু হয়েছে তল্লাশি। এমনকি প্রয়োজনে ওই আইপিএস অফিসারেও বিরুদ্ধেও পদক্ষেপ করা হবে।

উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ এই হত্যাকাণ্ড নিয়ে পুলিশকে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। মৃতদের পরিবারের উদ্দেশে শোকজ্ঞাপনও করেছেন তিনি। আহতদের যাতে চিকিৎসার কোনও রকম গাফিলতি না হয়, সে দিকে জেলা শাসক অঙ্কিত কুমার অগ্রবালকে নজর রাখতে বলেছেন। ঘটনায় জড়িত অন্যদের খোঁজে এলাকায় বাড়ি বাড়ি তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ।