• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

প্রজ্ঞা ঠাকুরকে দেওয়া চিঠিতে সন্দেহজনক রাসায়নিক, গ্রেফতার আয়ুর্বেদ চিকিত্সক

pragya thakur
প্রজ্ঞা ঠাকুর। -ফাইল চিত্র।

Advertisement

বিজেপি সাংসদ প্রজ্ঞা ঠাকুরকে সন্দেহজনক চিঠি পাঠানোর অভিযোগে এক আয়ুর্বেদ চিকিৎসককে গ্রেফতার করল মধ্যপ্রদেশ পুলিশ।

তাঁর উদ্দেশে উর্দুতে লেখা খামবন্দি এই চিঠিতে কয়েকজনের নামের সঙ্গে এমন কিছু রাসায়নিক পদার্থ দেওয়া ছিল বলে প্রজ্ঞা ঠাকুর অভিযোগে জানিয়েছেন, যার ফলে খামটা খোলার পরই তাঁর হাতে জ্বালা করতে শুরু করে। গত সোমবার প্রজ্ঞা ঠাকুর পুলিশে অভিযোগ জানান। তারপরই সন্দেহজনক ওই চিকিৎসককে গ্রেফতার করে পুলিশ।

পুলিশ জানিযেছে, ধৃতের নাম সৈয়দ আব্দুল রহমান খান। মধ্যপ্রদেশের নান্দেদ-এ তাঁর একটি ব্যক্তিগত ক্লিনিক রয়েছে। তিনি অক্টোবর মাসে চিঠিটি পাঠিয়েছিলেন। কিন্তু সে সময় প্রজ্ঞা ঠাকুর বাইরে থাকায় এতদিন চিঠিটা খোলা হয়নি। সোমবার ভোপালের বাড়িতে ফিরে তিনি চিঠিটা খোলেন।

আরও পড়ুন: ১০, ৯, ৮... বুম! সোলেমানি হত্যার বর্ণনা দিলেন ট্রাম্প

ওই চিঠিতে বেশ কয়েকজনের নাম রয়েছে। তার মধ্যে যেমন আনসারুল মুসলিমীন নামে একটি সন্ত্রাসবাদী গ্রুপের নাম রয়েছে আবার ওই চিকিৎসকের নিজের ভাইয়ের নামও রয়েছে। এই সন্ত্রাসবাদী গ্রুপের সঙ্গে যোগ দিয়ে প্রজ্ঞা ঠাকুরকে তাঁর ভাই খুন করার পরিকল্পনা করছেন, চিঠির বয়ান এমনই।

আরও পড়ুন: নির্ভয়া: পবনের হয়ে জাল নথি আদালতে, নোটিস আইনজীবীকে

তাঁকে গ্রেফতারের পর জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশ জানতে পেরেছে, ওই চিকিৎসকের সঙ্গে তাঁর ভাই ও মায়ের দীর্ঘদিন ধরেই গোলমাল চলছিল। তাঁদের গোলমালটা সম্পূর্ণ সম্পত্তি বিষয়ক। এর আগেও তিনি এ রকমই চিঠিতে তাঁর ভাইয়ের সঙ্গে সন্ত্রাসবাদী যোগ রয়েছে জানিয়ে সরকারি বিভিন্ন আধিকারিকদের চিঠি দিয়েছেন। গত তিন মাস ধরে তাঁকে খুঁজছে পুলিশ। কিন্তু মোবাইল বাড়িতে ফেলে কখনও ওরঙ্গাবাদ, কখনও নাগপুর বা অন্য কোনও শহরে ঘুরে বেড়ানোয় তাঁর হদিশ মিলছিল না।

এর পিছনে আর কোনও রহস্য রয়েছে কি না তা তদন্ত করে দেখছে পুলিশ।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন