• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মহিলা জঙ্গি সক্রিয়, সতর্কতা কাশ্মীরে

Militant
প্রতীকী ছবি।

প্রজাতন্ত্র দিবসের অনুষ্ঠানে এক মহিলা আত্মঘাতী জঙ্গি কাশ্মীরে হামলা চালাতে পারে বলে জানালেন গোয়েন্দারা। রাজ্যের সব থানায় এই সতর্কবার্তা পাঠিয়েছেন জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের আইজি মুনির খান। অন্য দিকে শোপিয়ানে খতম হয়েছে দুই জঙ্গি। পুলিশ জানিয়েছে, মহারাষ্ট্রে পুণের ইয়েরওয়াড়া এলাকার বাসিন্দা সাদিয়া আনোয়ার শেখ নামে বছর আঠারোর এক কিশোরীকে হামলার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। সে প্রজাতন্ত্র দিবসের অনুষ্ঠানস্থলে বা তার বাইরে হামলা চালাতে পারে।

কাশ্মীরে কয়েক দশক ধরে সন্ত্রাস চললেও মহিলা আত্মঘাতী জঙ্গি দেখেনি উপত্যকা। তবে সাদিয়া কোন সংগঠনের সদস্য তা নিয়ে মুখ খুলতে রাজি নন বাহিনীর কর্তারা। সিআরপিএফের আইজি জুলফিকার হাসানের কথায়, ‘‘এ বার হামলার সম্ভাবনা খুব বেশি। তাই বাহিনীকেও আরও বেশি সতর্ক থাকতে হচ্ছে।’’

এ দিনই শোপিয়ানে বাহিনীর অভিযানে খতম হয় দুই জঙ্গি। অভিযানের খবরে বাহিনী লক্ষ করে পাথর ছুড়তে শুরু করে স্থানীয়দের একাংশ। বাহিনীর ছররায় শাকির আহমেদ মির নামে এক স্থানীয় বাসিন্দা নিহত হন। আহত দুই কিশোরী শ্রীনগরের হাসপাতালে। পুলওয়ামার পাম্পোর স্টেশনের কাছে একটি আইই়ডি উদ্ধার করেছে সিআরপি। বিস্ফোরকটি উদ্ধার না হলে বড় ঘটনা ঘটতে পারত বলে জানিয়েছেন সিআরপি কর্তারা।

নিয়ন্ত্রণরেখায় পাকিস্তানি হামলায় গত শনিবার আহত এক সেনার মৃত্যু হয় আজ। গত বৃহস্পতিবার থেকে পাকিস্তানের সঙ্গে শুরু হওয়া সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা দাঁড়াল ১৩ জন। গত দু’বছরে নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর এবং আন্তর্জাতিক সীমান্তে পাকিস্তানের গুলি ও শেলে প্রাণ হারিয়েছেন ২৫ জন সাধারণ মানুষ। জখম ১৬৩ জন। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংহ জানান, উপত্যকায় শান্তি ফেরাতে বেশ কিছু ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে রাজ্য সরকারকে। পাথর ছোড়ায় অভিযুক্ত ৩,৬৮৫ জন যুবকের বিরুদ্ধে মামলা তুলে নেওয়া হচ্ছে। বাকি পাথর ছোড়ার মামলাগুলি
খতিয়ে দেখছে একটি কমিটি। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন