পতঙ্গের সঙ্গে তাঁর প্রেম দীর্ঘদিনের। বর্তমানে তিনি গবেষণা করছেন কেরলের সেক্রেড হার্ট কলেজে। গুজরাতের আমদাবাদের ওই গবেষক ধ্রুব প্রজাপতির পরিচিতি  ‘স্পাইডার ম্যান’ হিসেবেই। সম্প্রতি তিনি খুঁজে পেয়েছেন এক বিশেষ প্রজাতির মাকড়সা। আর সেই মাকড়সার নাম তিনি রেখেছেন কার্গিল যুদ্ধে শহিদ হওয়া এক সেনার নামে। ধ্রুব জানিয়েছেন, শহিদ সেনার প্রতি সম্মান জানাতেই এই নাম রেখেছেন তিনি।

ধ্রব প্রজাপতির বিশেষ প্রজাতির এই মাকড়সা আবিষ্কারের খবর সম্প্রতি ছাপা হয়েছে ‘অ্যান্থ্রপোডা সিলেক্টা’ নামের এক জার্নালের সাম্প্রতিক সংখ্যায়। সেখানে ধ্রুব ওই মাকড়সার নাম প্রস্তাব করেছেন ‘ইসিয়াস বিক্রমবাত্রাই’।

কার্গিল যুদ্ধের শহিদ হয়েছিলেন ক্যাপ্টেন বিক্রম বাত্রা। তিনি পেয়েছিলেন সুপার হিরোর সম্মান। মরনোত্তর পরম বীর চক্র পুরস্কারে ভূষিতও হয়েছিলেন তিনি। তাঁকে সম্মান জানাতেই গুজরাতের ওই পতঙ্গবিদের এই পদক্ষেপ।

ধ্রুব-র আবিষ্কৃত এই বিশেষ প্রজাতির মাকড়সাকে চিহ্নিত করা যায় চোখের বৈশিষ্ট্য। এই ধরনের মাকড়সার মাথা ও পায়ের আকৃতিও অন্যান্য মাকড়সার থেকে একটু আলাদা।

আরও পড়ুন: কী ভাবে বগিবিল ব্রিজে গাড়ির তলায় চলে গেল ৭ বছরের ছোট্ট সৌরভ!

তাঁর আবিষ্কৃত মাকড়সা নিয়ে ধ্রুব প্রজাপতি জানিয়েছেন, ‘‘ইসিয়াস প্রজাতির মোট ৩৫ ধরনের মাকড়সা সারা বিশ্বে দেকতে পাওয়া যায়। এর মধ্যে দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় পাওয়া যায় সাতটি প্রজাতি। এই মাকড়সা সেই তালিকায় এক নতুন সংযোজন।’’

এর আগে ভারতের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি এপিজে আব্দুল কালাম ও গুজরাতের রাজধানী গাঁধীনগরের নামেও কিছু প্রজাতির মাকড়সার নাম প্রস্তাব করেছিলেন।

আরও পড়ুন: ১৬ দিন পরেও মেঘালয়ের কয়লা খনিতে নিখোঁজ ১৫ শ্রমিক, উদ্ধার শুধু তিনটে হেলমেট

 

(ভারতের রাজনীতি, ভারতের অর্থনীতি- সব গুরুত্বপূর্ণ খবর জানতে আমাদেরদেশবিভাগে ক্লিক করুন।)