• রাজীবাক্ষ রক্ষিত 
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

রিয়াং শরণার্থীদের জন্য বুথ মিজোরাম সীমানায়

Election Commission of India

যৌথ মঞ্চের দাবি মেনে এ বার রিয়াং শরণার্থীদের পোস্টাল ব্যালটের সুবিধাও তুলে দিচ্ছে নির্বাচন কমিশন। ত্রিপুরার শরণার্থী শিবিরে থাকা প্রায় ৩৩ হাজার শরণার্থীর মধ্যে সাড়ে ১১ হাজার ভোটার। তাঁদের জন্য ত্রিপুরা-মিজোরাম সীমানায়, মিজোরামের দিকেই তৈরি করা হচ্ছে বুথ।

যৌথ মঞ্চ ও রাজ্য সরকারের দাবি ছিল, বার বার সুযোগ দেওয়ার পরেও তারা মিজোরামে না ফেরায় তাদের আর পোস্টাল ব্যালটের সুযোগ দেওয়া চলবে না। গত জুলাইয়ে কেন্দ্র, মিজোরাম ও ত্রিপুরার সঙ্গে শরণার্থী সংগঠনের চুক্তিতেও তার স্পষ্ট উল্লেখ ছিল। কিন্তু চুক্তি মেনে শেষ পর্যন্ত মাত্র ৩২টি পরিবার ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে মিজোরামে ফেরে। সদ্য দায়িত্ব নেওয়া রাজ্যের মুখ্য নির্বাচনী অফিসার আশিস কুন্দ্রা জানান, শরণার্থীদের সম্ভবত সীমাবর্তী কানমুন শহরে এনে ভোটদানের ব্যবস্থা করা হবে। যাঁরা ফিরেছেন তাঁরা নিজেদের বুথেই ভোট দিতে পারবেন। ভোট দেওয়াতে শরণার্থীদের ত্রিপুরার শিবির থেকে নিয়ে মিজোরামে নিয়ে এসে ভোট দেওয়ানোর ব্যবস্থা করার বিষয়ে নির্বাচন কমিশনের সবুজ সঙ্কেতের অপেক্ষায় আছেন কুন্দ্রা।

এ দিকে, রিয়াং শিবিরে প্রচার না করার জন্য যৌথ মঞ্চের আবেদনকে খারিজ করে বিজেপি সেখানে ইতিমধ্যেই প্রচার শুরু করেছে। রিয়াং প্রধান দু’টি আসন জিততে মরিয়া বিজেপি। বিজেপি নেতা হিমন্তবিশ্ব শর্মা আগামী কাল উত্তর ত্রিপুরার কাঞ্চনপুরে রিয়াং শরণার্থী শিবিরে ভোট প্রচারে যাচ্ছেন। 

কাল মামিত জেলায় প্রচার করেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংহ। রাজনাথের দাবি, কংগ্রেস ৫০ বছরে যে কাজ করতে পারেনি বিজেপি চার বছরে সেই কাজ করে দেখিয়েছে। গোটা উত্তর-পূর্বে শান্তি বিরাজ করছে। দেশের অন্য অংশের সঙ্গে রেল, বিমান, সড়কে মিজোরামের যোগাযোগ উন্নততর হয়েছে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন