প্রভাস-শিবরাজ-বাহুবলী— এই তিনটে শব্দ যেন মিলে মিশে একাকার হয়ে গিয়েছে। নেপথ্যে মধ্যপ্রদেশ বিজেপি সমর্থককুল। সোশ্যাল মিডিয়াতেও বিষয়টি ভাইরাল হয়ে পড়েছে। হইচই পড়ে গিয়েছে নতুন ‘বাহুবলী’কে নিয়ে। তা হলে কি বাহুবলীর নতুন সিকোয়েল হচ্ছে? 

‘সিকোয়েল’ই বটে! তবে এতে রং চড়েছে রাজনীতির। ২.১৬ মিনিটের একটি ভিডিয়ো। হুবহু ‘বাহুবলী’ ছবির সেট। দৃশ্যপটও এক। শুধু বদলে গিয়েছেন ‘বাহুবলী’ নিজেই। এখানে বাহুবলী মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিংহ চৌহান। বল্লালদেব-এর ‘ভূমিকা’য় দেখা গিয়েছে রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বী জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়াকে। তবে ভিডিয়োতে চমকের এখানেই শেষ নয়। বিপরীত চরিত্রে দেখা গিয়েছে কংগ্রেস নেতা কমল নাথ, দিগ্বিজয় সিংহ, এমনকি রাহুল ও সনিয়া গাঁধীকেও! আর ‘কাটাপ্পা’র ভূমিকায় রাখা হয়েছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নরেন্দ্র সিংহ তোমরকে।

ঠিক প্রভাসের ভঙ্গিতেই শিবরাজকে বিশাল শিবলিঙ্গ তুলে ধরতে দেখা গেল। সেই হুঙ্কার, সেই রণঞ্জয়ী লুক। সম্মুখসমরে দুই প্রতিদ্বন্দ্বী— শিবরাজ ‘বাহুবলী’ এবং জ্যোতিরাদিত্য ‘বল্লালদেব’।ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, যুদ্ধ জয় করে শিবরাজ বালি তুলে নিজের বুকে মাখাচ্ছেন। আর সেই সঙ্গে তেলুগু ভাষায়তাঁর হুঙ্কার, “আমি শিবরাজ সিংহ চৌহান। আমি মধ্যপ্রদেশের মানুষের সম্মান, মর্যাদা, সম্পদ রক্ষ করব। এর জন্য যদি নিজের প্রাণ দিতে হয় দেব!”

দেখুন সেই ভিডিয়ো

 

সামনেই ভোট। তার আগে এ ভাবেই ভিডিয়ো বানিয়ে শিবরাজকে বাহুবলীর ভূমিকায় দেখিয়ে নেট দুনিয়ায় প্রচার চালানো শুরু করে দিয়েছেনবিজেপি-র সমর্থকরা। আর এই ভিডিয়ো নিয়েই রাজ্য রাজনীতিতে শোরগোল পড়ে গিয়েছে। কংগ্রেস এই ভিডিয়ো নিয়ে ময়দানে নেমে পড়েছে। বিজেপির বিরুদ্ধে বিক্ষোভও দেখিয়েছে তারা। কংগ্রেস নেতা শোভা ওঝা বলেন, “সময়ই বলবে কে বাহুবলী, আর কে বল্লালদেব। রাজ্যের ভোটাররাই সেটা স্থির করবেন। তবে যে রাজ্যের ভাষা ব্যবহার করা হয়েছে, তা মানানসই নয়।” তিনি আরও জানান, রাজ্যে বেকারত্ব বাড়ছে, আইন-শৃঙ্খলা ভেঙে পড়েছে, কৃষকদের অবস্থা শোচনীয়। এ সব থেকে দৃষ্টি ঘোরাতেই বিজেপি এ ধরনের ভিডিয়ো ছড়াচ্ছে।

আরও পড়ুন: আইআরসিটিসি দুর্নীতি মামলায় জামিন তেজস্বী, রাবড়ির

যদিও এই ভিডিয়োর দায় তাদের নয় বলেই দাবি করেছে রাজ্য বিজেপি। মধ্যপ্রদেশ বিজেপির আইটি সেল-এর প্রধান দাবি করেছেন, “অনেক আইটি বিশেষজ্ঞ আছেন যাঁরা এ ধরনের ভিডিয়ো বানিয়েছেন। এ ক্ষেত্রে বিজেপির কোনও ভূমিকা নেই। কোথা থেকে কী ভাবে এই ভিডিয়ো এল, তাও জানি না। তবে ভিডিয়োটা দেখে মনে হচ্ছে যে বা যাঁরাই ভিডিয়োটা বানিয়েছেন, তাঁরা শিবরাজ সিংহের ভাবধারাতে বিশ্বাসী।”

আরও পড়ুন: স্বাধীনতার ৭৫ তম বর্ষেই চলবে দেশের প্রথম বুলেট ট্রেন

 

(কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারী, গুজরাত থেকে মণিপুর - দেশের সব রাজ্যের গুরুত্বপূর্ণ খবর জানতে আমাদের দেশ বিভাগে ক্লিক করুন।)