লিঙ্গ পরিবর্তনে অস্ত্রোপচারের জন্য রূপান্তরকামী মানুষকে দেড় লক্ষ টাকার আর্থিক সাহায্য দেবে বিহার সরকার। এ ছাড়া, ওই সম্প্রদায়ের মানুষজনকে বাড়িভাড়া দিতে অস্বীকার করলে অথবা তাঁদের অধিকার থেকে বঞ্চিত করলে ছ’মাস থেকে দু’বছরের কারাবাসের শাস্তি হবে।

ট্রান্স-মানুষদের স্বার্থরক্ষায় একটি বোর্ডও গঠন করেছে নীতীশ কুমার সরকার। রবিবার পটনায় ‘কিন্নর মহোৎসব’ নামে এক বার্ষিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের উদ্বোধনে এ কথা ঘোষণা করেন রাজ্যের উপমুখ্যমন্ত্রী সুশীল কুমার। তিনি বলেন, ‘‘ট্রান্সজেন্ডার সম্প্রদায়ের কেউ যদি লিঙ্গ পরিবর্তনকারী অপারেশন বা সেক্স রিঅ্যাসাইনমেন্ট সার্জারি (এসআরএস) করেন, তবে তাঁকে বিহার সরকারের তরফে দেড় লাখ টাকা দেওয়া হবে।’’

ট্রান্স-মানুষেরা যাতে বৈষম্যের শিকার না হন, তা নিয়েও উদ্যোগী হয়েছে রাজ্য সরকার। সুশীল মোদী জানিয়েছেন, বাড়ি ভাড়া দিতে রাজি না হলে বা ট্রান্স মানুষদের স্বাস্থ্য সংক্রান্ত বা অন্য অধিকার থেকে বঞ্চিত করা হলে দোষীকে কড়া শাস্তির মুখোমুখি হতে হবে। গোটা বিষয়ে নজর রাখতে সম্প্রতি ‘বিহার রাজ্য কিন্নর কল্যাণ বোর্ড’ গঠন করেছে রাজ্য সরকার। তাঁর কথায়, ‘‘অন্য রাজ্যের ট্রান্সজেন্ডার সম্প্রদায়ের মানুষরা কী কী সুযোগসুবিধা ভোগ করেন, তা-ও দেখবে বোর্ড। যাতে এ রাজ্যেও সেগুলি চালু করা যায়।’’

আরও পড়ুন: মিরাজ দুর্ঘটনায় মৃত পাইলট স্বামীর মতোই বায়ুসেনায় যোগ দেবেন গরিমা

আরও পড়ুন: কর্নাটক জট কাটার ইঙ্গিত, বিদ্রোহী বিধায়কদের মামলার রায় আগামিকাল, জানাল সুপ্রিম কোর্ট

আরও পড়ুন: ছ’বছরের বালিকাকে নিগ্রহের অভিযোগে যুবককে রাস্তায় নগ্ন করে পেটালেন মহিলারা

ঘটনাচক্রে, রবিবারই বিহারে প্রাইড প্যারেডের আয়োজন করা হয়। প্রাই়ড প্যারেডের আয়োজক রেশমা প্রসাদের দাবি, ‘‘ট্রান্সজেন্ডার সম্প্রদায়ের জন্য বিহারেই প্রথম এ ধরনের বার্ষিক উৎসবের আয়োজন করা হচ্ছে। সম্মান, নিরাপত্তার পাশাপাশি আমাদের সম্প্রদায়ের মানুষদের জন্য কর্মসংস্থানও চাই।’’ ওই প্যারেডের সহকারী সংগঠক ডিম্পল জ্যাসমিন বলেন, ‘‘লিঙ্গের ভিত্তিতে নয়, বরং যোগ্যতার মাপকাঠিতে আমাদের বিচার করা উচিত।’’

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও।সাবস্ক্রাইব করুনআমাদেরYouTube Channel - এ।