বিজেপি সাংসদ ওম বিড়লালোকসভার স্পিকার নির্বাচিত হলেন। বুধবার সপ্তদশ লোকসভা অধিবেশনের তৃতীয় দিনে স্পিকার হিসাবে প্রবীণ এই বিজেপি নেতার নাম প্রস্তাব করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তাতে এনডিএ শিবিরের সব দলই সম্মতি দেয়। যার পর হাত ধরে তাঁকে স্পিকারের আসনে বসিয়ে আসেন মোদী স্বয়ং।

রাজস্থানের কোটা-বুঁদির সাংসদ ওম বিড়লা। কংগ্রেসের রামনারায়ণ মীনাকে আড়াই লক্ষ ভোটে হারিয়ে সম্প্রতি দ্বিতীয় বার সাংসদ নির্বাচিত হয়েছেন তিনি। এর আর আগে তিন দফায় রাজস্থানের বিধায়ক ছিলেন। এ ছাড়াও, সংসদের বিদ্যুৎ সংক্রান্ত স্ট্যান্ডিং কমিটির সদস্য ছিলেন ওম বিড়লা। সামাজিক ন্যায় ও ক্ষমতায়ন মন্ত্রকের পরামর্শদাতা কমিটি এবং পিটিশন কমিটিরও সদস্য ছিলেন তিনি।

তাঁকে স্পিকার করা হতে পারে বলে গত কয়েক দিন ধরেই জল্পনা চলছিল দিল্লির রাজনৈতিক মহলে, এ দিন সরাসরি তাঁর নাম প্রস্তাব করেন নরেন্দ্র মোদী। ওম বিড়লার প্রতিদ্বন্দ্বী হিসাবে বিরোধীদের তরফে কারও নাম প্রস্তাব করা হয়নি। তাই এনডিএ-র শরিক দলগুলি তো বটেই, কংগ্রেস, তৃণমূল, বিজেডি এবং ডিএমকে-র মতো দলগুলির সম্মতিতে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়লাভ করেন ওম বিড়লা। তাঁকে বিজয়ী ঘোষণা করেন প্রোটেম স্পিকার বীরেন্দ্র কুমার।

আরও পড়ুন: মোদীর বৈঠক: মমতার পাশে মায়াবতীও, বললেন, ইভিএম নিয়ে কথা হলে যেতাম, অনিশ্চিত কংগ্রেস​

ওম বিড়লার সম্পর্কে এ দিন প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘‘ওম বিড়লার রাজনৈতিক আদর্শের কেন্দ্রবিন্দুই হল জনসেবা। উনি একজন জনদরদী নেতা। এ বার অধ্যক্ষ হিসাবে লোকসভার কাজ পরিচালনা করবেন।’’ নবনির্বাচিত স্পিকারের উদ্দেশে মোদী আরও বলেন, ‘‘এত যে কাজ করেছেন আপনি, বিধায়ক এবং সাংসদ হিসাবে যে ভাবে দেশের স্বার্থে নিজের জীবন উৎসর্গ করেছেন, তা প্রশংসনীয়।’’

আরও পড়ুন: ফোর্ট উইলিয়ামে নাবালিকাকে ধর্ষণ, ধৃত সেনা আবাসনের কর্মী​

গুজরাত ভূমিকম্প এবং কেদারনাথে বন্যার সময়ও সব কাজ ফেলে ওম বিড়লার ভূমিকার কথা তুলে ধরেন মোদী। তিনি জানান, ‘‘গুজরাতে ভয়াবহ ভূমিকম্পের সময় বেশ কয়েক মাস ধরে কচ্ছেই পড়েছিলেন উনি। একই ভাবে বন্যার সময় কয়েক মাস কাটিয়েছিলেন কেদারনাথে।’’ এনডিএ সরকারের প্রথম দফায় লোকসভা স্পিকারের দায়িত্ব সামলেছেন সুমিত্রা মহাজন। হাসিমুখে পরিস্থিতি সামলানোর জন্য তাঁরও প্রশংসা করেন মোদী।

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের YouTube Channel - এ।