রাফাল যুদ্ধবিমান নিয়ে ফের ঝড় উঠতে চলেছে সংসদে। কারণ আজ, মঙ্গলবার লোকসভায় রাফাল নিয়ে কম্পট্রোলার অ্যান্ড অডিটর জেনারেলের (সিএজি) রিপোর্ট পেশ হচ্ছে সংসদে। তবে যা নিয়ে বিতর্ক, সেই দামের বিষয়টিই রিপোর্টে থাকছে না। এমনটাই খবর সিএজি সূত্রে। বর্তমান সিএজি রাফাল চুক্তির সময় ছিলেন অর্থসচিব। ফলে স্বার্থের সঙ্ঘাতের অভিযোগে সরব বিরোধীরা। দাম নিয়েও সুর চড়াবেন কংগ্রেস-সহ অধিকাংশ বিরোধী সাংসদ। সব মিলিয়ে সিএজি-র রাফাল রিপোর্ট ঘিরে সংসদ উত্তাল হওয়ার পটভূমি তৈরি।

লোকসভা ভোটের আগে এটাই শেষ অধিবেশন। সেই অধিবেশনও শেষের আগের দিনই লোকসভায় পেশ হতে চলেছে রাফাল নিয়ে সিএজি রিপোর্ট। কিন্তু সেই রিপোর্টে রাফালের দামের উল্লেখ থাকবে না বলে সিএজি সূত্রে খবর। সরকার পক্ষ আগেই জানিয়েছিল, জাতীয় নিরাপত্তার স্বার্থেই রাফালের দাম প্রকাশ্যে আনা হবে না। অথচ বিরোধীদের অভিযোগ এই দাম নিয়েই।

কী সেই অভিযোগ? কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গাঁধী বরাবর অভিযোগ করে আসছেন, ইউপিএ জমানার ১২৬টি রাফাল কেনার চুক্তি বাতিল করে ৩৬টি যুদ্ধবিমান কেনার চুক্তি করে এনডিএ তথা মোদী সরকার। এই চুক্তিতে যুদ্ধবিমানের জন্য ৪১ শতাংশ বেশি দাম দেওয়া হয়েছে। তাই দাম প্রকাশ্যে আনার দাবি জানিয়েছেন বারবার। পাশাপাশি, অনিল অম্বানীর সংস্থাকে সুবিধা পাইয়ে দিতেই নয়া চুক্তি করা হয়েছে বলেও অভিযোগ তুলেছেন রাহুল গাঁধী।

আরও পড়ুন: প্রিয়ঙ্কা ময়দানে নামতেই নতুন ভাবনা অখিলেশ-মায়াবতীর, যাচ্ছে ‘সমঝোতা’র প্রস্তাব!

আরও পড়ুন: রাজীব-কুণাল যৌথ প্রশ্নোত্তর শেষ, নগরপালকে ডাকা হতে পারে কালও

কিন্তু সিএজি সূত্রের খবর, প্রতিরক্ষা মন্ত্রক থেকে তাঁকে স্পষ্ট বলে দেওয়া হয়, জাতীয় নিরাপত্তার স্বার্থে দামের খুঁটিনাটি রিপোর্টে রাখা যাবে না। সরকারের তরফে প্রচুর ‘চাপ’ছিল বলেও ঘনিষ্ঠ মহলে জানিয়েছেন সিএজি। তাহলে কী থাকবে রিপোর্টে? সিএজি সূত্রে ইঙ্গিত, ২০০৭ সালে ইউপিএ জমানার রাফাল চুক্তি এবং ২০১৫ সালের চুক্তির তুল্যমূল্য একটি চিত্র তুলে ধরার চেষ্টা করা হবে। কেন ১২৬টির বদলে ৩৬টি যুদ্ধবিমান কেনার সিদ্ধান্ত নেওয়া হল, তারও একটি ব্যাখ্যা থাকার সম্ভাবনা রয়েছে সিএজি রিপোর্টে।

কংগ্রেস-সহ বিরোধী শিবির সূত্রে খবর, রাফাল যুদ্ধের প্রস্তুতি নিয়েই কাল সংসদে যাবেন দলের সাংসদরা। তুমুল হইহট্টগোলে সভার কাজ যে ব্যাহত হতে পারে, আগে থেকেই তার আঁচ পাওয়া যাচ্ছে।

(ভারতের রাজনীতি, ভারতের অর্থনীতি- সব গুরুত্বপূর্ণ খবর জানতে আমাদের দেশ বিভাগে ক্লিক করুন।)