কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের মহার্ঘ ভাতা আরও ২ শতাংশ বাড়ল। পেনশন প্রাপকরাও এই বাড়তি সুবিধা পাবেন। কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা বুধবার এই প্রস্তাব অনুমোদন করেছে। চলতি বছরের ১ জুলাই থেকে এই বাড়তি মহার্ঘ ভাতা কার্যকর হবে। আর এর ফলে পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের সঙ্গে কেন্দ্রীয় কর্মচারীদের বেতনের ফারাক বেড়ে গেল আরও খানিকটা। বাড়ল মহার্ঘ ভাতার ফারাকও।

মহার্ঘ ভাতা ১২৫ শতাংশে পৌঁছে যাওয়ায় ২০১৬ সালের ১ জানুয়ারি কেন্দ্রীয় সরকার সপ্তম বেতন কমিশন কার্যকর করে। নতুন বেতন কমিশনের বর্ধিত বেতনের উপরে ২০১৬ সালের ১ জুলাই ২ শতাংশ মহার্ঘ ভাতা দেয় কেন্দ্র। বিরোধী রাজ্য সরকারি কর্মচারী সংগঠনগুলির হিসেব অনুযায়ী, ওই ২ শতাংশ মহার্ঘ ভাতা কনজিউমার প্রাইস ইনডেক্স (সিপিআই) অনুসারে ৭ শতাংশের সমতুল। ২০১৭ সালের ১ জানুয়ারি ফের ২ শতাংশ মহার্ঘ ভাতা ঘোষণা করে কেন্দ্র, যা সিপিআই ৪ শতাংশের সঙ্গে তুলনীয়। ওই বছরের ১ জুলাই ১ শতাংশ মহার্ঘ ভাতা বা সিপিআই ইনডেক্স অনুসারে ৩ শতাংশের তুলনীয় মহার্ঘ ভাতা ঘোষণা করা হয়। ২০১৮ সালের ১ জানুয়ারি ২ শতাংশ মহার্ঘ ভাতা ঘোষণা করে কেন্দ্র। তা সিপিআই ইনডেক্সের ৩ শতাংশের সমান। অর্থাৎ এ পর্যন্ত ৭ শতাংশ মহার্ঘ ভাতা ঘোষণা করে হয়েছে, যা সিপিআই ইনডেক্সে ১৭ শতাংশের সমান।

বুধবার ফের ২ শতাংশ, বা এ পর্যন্ত ৯ শতাংশ মহার্ঘ ভাতা ঘোষণা করা হয়েছে। এই মহার্ঘ ভাতা সিপিআই ইনডেক্স অনুসারে ৫ শতাংশের সমতুল ধরা হলে তা হবে ২২ শতাংশ। অর্থাৎ, কেন্দ্র এবং তাদের স্বশাসিত সংস্থার  কর্মীরা (যাঁদের বেতন সংশোধন হয়নি) ১২৫ শতাংশের ওপর ২২ শতাংশ মিলিয়ে ১৪৭ শতাংশ মহার্ঘ ভাতা পাচ্ছেন। অন্য দিকে রাজ্য সরকারি কর্মচারীরা এই মুহূর্তে ১০০ শতাংশ মহার্ঘ ভাতা পাচ্ছেন। বেতন কমিশনও এখনও কার্যকর হয়নি। ফলে কেন্দ্রের সঙ্গে রাজ্যের প্রকৃত ব্যবধান হচ্ছে ৪৭ শতাংশ। ২০১৯ সালের ১ জানুয়ারি ১২৫ শতাংশ হারে মহার্ঘ ভাতা পাবেন রাজ্য সরকারি কর্মচারীরা। তত দিনে ফের এক কিস্তি মহার্ঘ ভাতা দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করবে কেন্দ্র।

আইএনটিইউসি প্রভাবিত কনফেডারেশন অব স্টেট গভর্নমেন্ট এমপ্লইজের সাধারণ সম্পাদক মলয় মুখোপাধ্যায় বলেন, ‘‘বর্তমান সরকারের আমলে বঞ্চনা সীমাহীন হয়েছে। সেই জন্য আমরা মামলায় গিয়েছি। মামলার রায়ের অপেক্ষায় রয়েছি।’’ তৃণমূল প্রভাবিত সরকারি কর্মচারী সংগঠন পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারি কর্মচারী ফেডারেশনের এক নেতার কথায়, ‘‘মুখ্যমন্ত্রী বেতন কমিশন কার্যকর করার ব্যাপারে চিন্তাভাবনা করছেন। তাঁর উপরে আমরা ভরসা রাখছি। সেটা কার্যকর হলে সমস্যা অনেকটা মিটবে।’’

নবান্নের অভিজ্ঞ কর্মচারি নেতার ব্যাখ্যা— ২০১৬ সালের ১ জানুয়ারি থেকে হিসেব করলে রাজ্য সরকারের কর্মীদের মূল বেতন ১০০ টাকা হলে কেন্দ্রীয় কর্মীদের তা ২৫৭ টাকা। কারণ, কেন্দ্রে সপ্তম বেতন কমিশন কার্যকর হয়েছে। ‘পে কমিশন অ্যাওয়ার্ড’ ধরলে কেন্দ্রীয় সরকারের কর্মচারীদের মূল বেতনের সঙ্গে ২.৫৭ গুণ করে বেতন ধার্য করা হয়। সেই যুক্তিতে রাজ্যের কর্মীরা ১০০ টাকা পেলে কেন্দ্রের কর্মীরা  ২৫৭টাকা পাচ্ছেন।