যাঁরা নিয়মিত আমদানি-রফতানির ব্যবসা করেন, তাঁদের সুবিধার কথা ভেবে সীমান্তে শুল্ক দফতরে অনলাইন ব্যবস্থা চালু করতে চাইছে কেন্দ্রীয় সরকার। যাতে কাগজপত্র সংক্রান্ত বেশির ভাগ কাজই কম্পিউটারে হয়ে যায়।

দেশের বহু জায়গায় চালু হয়ে গেলেও পশ্চিমবঙ্গে ভুটান ও বাংলাদেশের সীমান্তে ২১টি ‘ল্যান্ড কাস্টমস স্টেশন’ বা শুল্ক কেন্দ্রের অধিকাংশই অনলাইন ব্যবস্থার আওতায় ছিল না। রাজ্যের প্রিন্সিপাল শুল্ক কমিশনার দীপ শেখর জানান, ১৫ মে কলকাতার খিদিরপুর, জলপাইগুড়ির বীরপাড়া ও চামুরচি এবং বসিরহাটের ঘোজাডাঙা— মোট চারটি কেন্দ্রে অনলাইন ব্যবস্থা চালু হয়েছে। এই মাসে আরও চারটি কেন্দ্রে এই ব্যবস্থা চালু করা হবে।

দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯