• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

করোনাভাইরাসের আতঙ্কের মধ্যেই বিয়ে, সংস্কৃত, চিনা-সহ ৪ ভাষায় উচ্চারিত হল মন্ত্র

Chinese lady
জিহাও, সত্যার্থ। ছবি: পিটিআই।

চিনে প্রতিদিন বাড়ছে করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা। কিন্তু সেই ভয়কে উপেক্ষা করেই বা়ড়ি থেকে সাড়ে চার হাজার কিলোমিটার দূরে মধ্যপ্রদেশের মাটিতে বিয়ে করে ফেললেন চিনের জিহাও ওয়াং। বিয়ে করলেন মধ্যপ্রদেশের সত্যার্থ মিশ্রকে। রবিবার তাঁদের বিয়েতে চার ভাষায় মন্ত্রোচ্চারিত হল।

মধ্যপ্রদেশের মন্দসৌর থেকে চিনে গণজ্ঞাপন পড়তে গিয়েছিলেন সত্যার্থ মিশ্র। সেখানে মেকআপ আর্টিস্টের পাঠ নিচ্ছিলেন জিহাও ওয়াংয়ের সঙ্গে পরিচয় হয় তাঁর। তারপর সেই পরিচয় গড়ায় ভালবাসায়। দু’জনেঠিক করেন বিয়ে করবেন। সেই মতো কথাও হয় দুই পরিবারের মধ্যে। তাঁরাও ছেলে-মেয়ের এই সিদ্ধান্ত মেনে নেন। ঠিক হয় ২ ফেব্রুয়ারির বিয়ে হবে।

এ পর্যন্ত সবই ঠিকঠাক চলছিল। কিন্তু বাধ সাধল করোনাভাইরাস। গোটা চিনে মৃত্যুর আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।এর মধ্যে বিয়ে হবে কী করে? জিহাও-এর পরিবার চেয়েছিল বিয়ে পিছিয়ে দেওয়া হোক। কিন্তু জিহাও-এর মত ঠিক উল্টো। তিনি চাইছিলেন নির্দিষ্ট দিনেই বিয়ে হোক। শেষ পর্যন্ত মেয়ের কথাই মেনে নেয় তাঁর পরিবার।

আরও পড়ুন: করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের জন্য ১০ দিনে গড়ে ওঠা হাসপাতাল চালু চিনে​

বিয়ের জন্য চিন থেকে মধ্যপ্রদেশ আসার জন্য জিহাও-এরপরিবারের মোট আট জন ভিসার আবেদন করেন। কিন্তু মাত্র পাঁচ জনই ভিসা পেয়েছেন। বাকি তিন জনকে চিন থেকেই নবদম্পতিকে আশীর্বাদ করতে হয়েছে। রবিবার মধ্যপ্রদেশের মন্দসৌরে চার হাত এক হয়। জিহাও এবং সত্যার্থ করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার বেশ কিছুদিন আগেই ভারতে চলে এসেছিলেন।

আরও পড়ুন: ৫ লাখ টাকা খরচ করে ঘুমালেন এই ব্যক্তি!

কিন্তু চৈনিক কন্যার সঙ্গে ভারতীয় ছেলের বিয়েতে কোন ভাষায় মন্ত্র পড়া হবে? মূলমন্ত্র উচ্চারিত হল সংস্কৃততে। আর সেই মন্ত্র সত্যার্থের মা গৌরী চিনা ভাষায় অনুবাদ করে দিলেন মেয়ের বাড়ির লোকের জন্য। আর বাকিদের জন্য হিন্দি ও ইংরেজিতে তর্জমা হল সংস্কৃত মন্ত্রের।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন