• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

চুক্তিভিত্তিক কর্মীদের পাশে দাঁড়াল রেল 

Rail
প্রতীকী ছবি।

করোনাভাইরাসের সঙ্গে যুদ্ধে এ বার এগিয়ে এল রেল। মঙ্গলবার রেল বোর্ডের তরফে একটি নোটিস জারি করে তাদের সবক’টি উৎপাদন বিভাগকে হাসপাতাল ও কোয়রান্টিন সেন্টারগুলির জন্য প্রয়োজনীয় বিছানা, মেডিক্যাল ট্রলি ও আইভি স্ট্যান্ড তৈরির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

চিত্তরঞ্জন লোকো ওয়ার্কস, চিত্তরঞ্জনের ইন্টিগ্রাল কোচ ফ্যাক্টরি, চেন্নাইয়ের রেল কোচ ফ্যাক্টরি, কপূরথালার ডিজেল লোকো ওয়ার্কস, বারাণসী অ্যান্ড রেল হুইল ফ্যাক্টরি-সহ রেলের একাধিক উৎপাদক সংস্থাকে ইতিমধ্যেই ওই নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছে। শুধু বিছানা নয়, স্ট্রেচার, হাসপাতালে ব্যবহৃত পা-দানি, বিছানা সংলগ্ন লকার, ওয়াশবেসিন প্রভৃতি বানানো সম্ভব কিনা, তা-ও খতিয়ে দেখতে বলা হয়েছে। এর জন্য ওই সব এলাকার প্রধান স্বাস্থ্য আধিকারিকের সঙ্গে আলোচনা করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত দেশ জুড়ে রেল পরিষেবা স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র। এই পরিস্থিতিতে বেতন মিলবে কি না, এ নিয়ে উদ্বেগে দিন কাটাচ্ছিলেন রেলে কর্মরত লক্ষ লক্ষ চুক্তিভিত্তিক কর্মী। মঙ্গলবার রেল বোর্ডের তরফে এ সংক্রান্ত একটি নির্দেশিকা জারি করে জানানো হয়েছে, এই পরিস্থিতিতে সাময়িক, চুক্তিভিত্তিক— সমস্ত ধরনের কর্মীকেই কর্তব্যরত ধরে নিয়ে কারওরই বেতন কাটা হবে না। 

চুক্তিভিত্তিক কর্মীদের ক্ষেত্রে জানানো হয়েছে, তাদের চুক্তি অনুযায়ী প্রতিশ্রুত টাকার সর্বোচ্চ ৭০ শতাংশ পর্যন্ত দেওয়া হতে পারে। এবং তা এককালীন হিসেবে দেওয়া হতে পারে। পাশাপাশি, এই সময় যাতে কোনও কর্মীকে ছাঁটাই করা না হয়, তা-ও রেল বোর্ডের তরফে নিশ্চিত করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন