• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মহারাষ্ট্রে লকডাউনেও রাস্তায় অনেকেই, সেনা নামানোর হুঁশিয়ারি অজিত পওয়ারের

Maharashtra
গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ

সারা দেশের মধ্যে সবচেয়ে বেশি করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ছড়িয়েছে মহারাষ্ট্রে। আক্রান্ত শতাধিক। তিন জনের মৃত্যু হয়েছে। কিন্তু তার পরেও হুঁশ ফেরেনি এক শ্রেণির মানুষের। রাস্তায় তো বেরোচ্ছেনই, পুলিশ-চিকিৎসকদের মারধরের মতো ঘটনাও ঘটেছে রাজ্যে। তাই এ বার আরও কঠোর ভাবে লকডাউন কার্যকর করতে সেনা নামানোর হুঁশিয়ারি দিলেন রাজ্যের উপমুখ্যমন্ত্রী অজিত পওয়ার

নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের সরবরাহ স্বাভাবিক রাখার আশ্বাস দিয়ে অজিত পওয়ার বলেন, ‘‘আমেরিকায় লকডাউন কার্যকর করতে সেনার সাহায্য নিয়েছে ট্রাম্প প্রশাসন। আমাদেরও সেই পথে হাঁটতে বাধ্য করবেন না। এটা আপনাদের দায়িত্ব।’’ লকডাউন ও করোনা পরিস্থিতি পর্যালোচনায় বৃহস্পতিবার অন্য মন্ত্রীদের সঙ্গে আলোচনায় বসেন অজিত। সেই বৈঠকেই রাস্তায়-বাজারে উদ্দেশ্যবিহীন ঘোরাফেরা ও পুলিশকর্মীদের আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি সামনে আসে। তার পরেই অজিতের এই হুঁশিয়ারি।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে মহারাষ্ট্রে উদ্বেগ বেড়েই চলেছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের হিসেবে বৃহস্পতিবার বিকেল পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ১২৪ জন। তাঁদের মধ্যে ৩ জন বিদেশি। মৃত্যু হয়েছে ৩ জনের।  সংক্রমণ আটকাতে রাজ্যে লকডাউন আগেই ঘোষণা হয়েছিল। তার সঙ্গে বুধবার সারা দেশেই লকডাউনের ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। কিন্তু তার পরেও এমন ঘটনা ঘটেছে, যাতে সরকারের উদ্বেগ আরও বেড়েছে।

আরও পড়ুন: করোনা সংক্রমণ কাটিয়ে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে শেয়ার বাজার? টানা তিন দিনের উত্থানে বাড়ছে আশা

বৃহস্পতিবারই পালঘরের বাসাই এলাকায় রাস্তায় কর্তব্যরত পুলিশকর্মী একটি বাইক আটকাতে গেলে, না থামিয়ে সেটি সোজা ওই পুলিশকর্মীর গায়ের উপরে চালিয়ে দেন ওই যুবক। জোর করে লকডাউন কার্যকর করতে গিয়ে পুলিশকর্মীরা আক্রান্ত হয়েছেন বিড় এলাকাতেও। আবার মালেগাঁওয়ের একটি হাসপাতালে চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের মারধরের অভিযোগ উঠেছে আসাদউদ্দিন ওয়াইসির দল অল ইন্ডিয়া মজলিস-এ-ইত্তেহাদুল মুসলিমিনের সমর্থকদের বিরুদ্ধে।

এই সব ঘটনার প্রক্ষিতেই সেনা নামানোর কথা বলার পাশপাশি পুলিশ ও চিকিৎসক নিগ্রহের ঘটনায় কাউকেই ছাড়া হবে না বলেও জানিয়েছেন মহারাষ্ট্রের উপমুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘‘করোনাভাইরাস মোকাবিলার সঙ্গে যুক্ত কারও উপর কোনও রকম আক্রমণ বরদাস্ত করা হবে না। দোষীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’’

আরও পড়ুন: করোনা আপডেট: বিশ্বে মৃত ২১ হাজার, সুস্থ লক্ষাধিক, দেশে গড়া হচ্ছে বিশেষ হাসপাতাল

টানা তিন সপ্তাহের লকডাউনে রসদে টান পড়তে পারে, এই আশঙ্কায় বাজার-দোকানে ভিড় জমিয়েছেন সাধারণ মানুষ। কিন্তু লকডাউন হলেও দুধ, ফলমূল, আনাজ, ওষুধ, খাদ্যশস্য, জ্বালানি-সহ সমস্ত নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী পর্যাপ্ত পরিমাণে মজুত রয়েছে বলে আশ্বাস দিয়েছেন অজিত।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন