• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

কেরল-কাণ্ডের জল গড়াল কেন্দ্রীয় কমিটিতে

CPM
সিপিআই(এম) কেন্দ্রীয় কমিটির দুদিনের বৈঠকে পার্টির সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি। —নিজস্ব চিত্র।

সোনা-কাণ্ড এবং আরও কিছু বিতর্কের জেরে দলের কেন্দ্রীয় কমিটিতে প্রশ্নের মুখে পড়তে হল সিপিএমের কেরল রাজ্য নেতৃত্বকে। পিনারাই বিজয়নেরা গোটা বিতর্ককেই বিরোধীদের ‘উদ্দেশ্যপ্রণোদিত প্রচার’ বলে খারিজ করতে চাইলেও সিপিএমের কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব তার সঙ্গে একমত নন। ভবিষ্যতে দেশি বা বিদেশি উপদেষ্টা সংস্থার সঙ্গে আদানপ্রদানের ক্ষেত্রে দলের তৈরি করে দেওয়া নির্দেশিকা মেনে চলার কথা স্মরণ করিয়ে দেওয়া হয়েছে কেরলের রাজ্য নেতৃত্বকে।

সম্প্রতি তিরুঅনন্তপুরম বিমানবন্দর থেকে শুল্ক দফতরের হাতে আটক প্রায় ১৫ কোটি টাকার সোনার সূত্রে এখন জলঘোলা চলছে কেরলের রাজনীতিতে। সোনা পাচারের ঘটনায় অভিযুক্তদের মধ্যে অন্যতম স্বপ্না সুরেশ কেরলের তথ্যপ্রযুক্তি দফতরে চুক্তির ভিত্তিতে কাজ করতেন, সরকারের নানা স্তরে তাঁর ভাল যোগাযোগ ছিল বলে অভিযোগ। স্বপ্নার সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলার অভিযোগেই মুখ্যমন্ত্রীর দফতরে এক সময়ে কর্মরত এক আমলাকে পদ থেকে সরিয়ে নিলম্বিত করা  হয়েছে। গোটা ঘটনা নিয়েই কেরল রাজ্য নেতৃত্ব শনিবার থেকে শুরু হওয়া কেন্দ্রীয় কমিটির অনলাইন বৈঠকে রিপোর্ট দিয়েছেন। তার প্রেক্ষিতেই সতর্কতা জারি করেছেন স্বয়ং সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি।

দলীয় সূত্রের খবর, সাধারণ সম্পাদকের বক্তব্য, উপসাগরীয় দেশগুলি থেকে তো বটেই, আরও কিছু আন্তর্জাতিক সংস্থা কেরলে চু্ক্তির ভিত্তিতে নানা প্রকল্পের কাজ করছে। বেশ কিছু ক্ষেত্রে তাদের কাজ উপদেষ্টার। এই সব সংস্থার সঙ্গে লেনদেনের ক্ষেত্রে আরও সতর্কতা নেওয়া প্রয়োজন। কারণ, চুক্তির ভিত্তিতে এই ধরনের সংস্থার নিযুক্ত লোকজন সরকারের মধ্যে যোগাযোগ গড়ে তুলে সেই ‘প্রভাব’ খাটিয়ে বিভিন্ন রকম ‘ধোঁয়াশাপূর্ণ কারবার’ করছে এবং তাতে ভাবমূর্তির ক্ষতি হচ্ছে সরকারের। কেরলের প্রতিনিধিরা অবশ্য কেন্দ্রীয় কমিটিতে বলেছেন, এখন দলের মধ্যে বিতর্ক না করে বিরোধীদের প্রচার মোকাবিলা করার কৌশল ঠিক করার দিকেই নজর দেওয়া উচিত।

আলিমুদ্দিন স্ট্রিট থেকে ভিডিয়ো কনফারেন্সে কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকে যোগ বাংলার সিপিএম নেতাদের। —নিজস্ব চিত্র।

পলিটব্যুরোর পরে এ বার কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকও হচ্ছে অনলাইনে। নিজেদের রাজ্য দফতরে বসেই কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্যেরা ভিডিয়ো কনফারেন্সে বৈঠকে যোগ দিচ্ছেন। বাংলার সদস্যেরা যেমন বৈঠকে শামিল হয়েছিলেন আলিমুদ্দিন স্ট্রিটে বসে। বৈঠকের দ্বিতীয় দিনে, আজ, রবিবার সিপিএমের পার্টি কংগ্রেস ও সম্মেলন প্রক্রিয়া পিছিয়ে দেওয়ার ভাবনা নিয়ে আলোচনা হতে পারে বলে দলীয় সূত্রের ইঙ্গিত।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন