• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘অসাধারণ কাজ করেছেন’, ভোট মিটতেই নবীন-স্তুতি মোদীর

Narendra Modi and Naveen Patnaik
পরিদর্শনে: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে বিমানবন্দরে স্বাগত জানালেন ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়ক। সোমবার ভুবনেশ্বরে। ছবি: পিটিআই।

ভোটের প্রচারে একে অন্যের বিরুদ্ধে বিষোদ্গার করেছেন। ওড়িশার উন্নয়ন না হওয়ার সব দায় মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়কের উপরে চাপিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ভোট পর্ব কেটে যাওয়ার পরে, এ বার ফণী-র মোকাবিলা নিয়ে নবীনের প্রশংসায় পঞ্চমুখ সেই মোদীই। সোমবার মোদীর মন্তব্য, ‘‘ফণী থেকে ওড়িশার মানুষকে বাঁচাতে নবীনবাবু অসাধারণ পরিকল্পনা করেছেন।’’

ঘূর্ণিঝড়ের ক্ষয়ক্ষতি খতিয়ে দেখতে আজ ওড়িশায় গিয়েছিলেন মোদী। মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে হেলিকপ্টারে ঘুরে দেখেছেন সব। ওড়িশাকে ১ হাজার কোটি টাকা সাহায্য দেওয়ার কথাও ঘোষণা করেছেন। আগেই অবশ্য ওড়িশার জন্য ৩৮১ কোটি টাকা মঞ্জুর করেছিল কেন্দ্র। ফণীর তাণ্ডব ও রাজ্যের বিভিন্ন জেলার পুনর্গঠন নিয়ে আজ নবীনের সঙ্গে বেশ কিছু ক্ষণ আলোচনা করেন মোদী। সূত্রের খবর, ওড়িশার পুনর্গঠনের জন্য প্রাথমিক ভাবে ১৭ হাজার কোটি টাকার আর্থিক সহায়তা চেয়েছে পট্টনায়কের সরকার। এর মধ্যে ১০ হাজার কোটি টাকা উপকূল এলাকায় বিপর্যয়রোধী বিদ্যুৎ পরিকাঠামো নির্মাণের জন্য চাওয়া হয়েছে। এ ছাড়া, বাকি ৭ হাজার কোটি টাকা দাবি করা হয়েছে ফণীতে ধ্বংস হয়ে যাওয়া ঘরবাড়ি তৈরির জন্য। ভুবনেশ্বর বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে নবীন দাবি করেছেন, একের পর এক প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের শিকার হচ্ছে ওড়িশা। ঘুরে দাঁড়াতে ওড়িশাকে বিশেষ মর্যাদার রাজ্য হিসেবে স্বীকৃতি দিতে হবে। মোদী এ নিয়ে কী অবস্থান নেন, তা স্পষ্ট নয়। তবে এ দিনই প্রধানমন্ত্রী মন্তব্য করেছেন, ‘‘রাজ্য সরকারকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। ঘূর্ণিঝড়ের আগে অসাধারণ দক্ষতায় তারা মানুষকে সরিয়ে নিয়ে যেতে পেরেছে। ওড়িশায় যে ভাবে ফণীর মোকাবিলা করা হয়েছে, তা প্রশংসা  করার মতো।’’ মোদীর মতে, অতীতে প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের সময়ে মানুষকে ঘর ছেড়ে যেতে বললে তাঁরা রাজি হতেন না। কিন্তু ওড়িশায় এ বার তেমন হয়নি। গোটা পরিকল্পনার জন্য মুখ্যমন্ত্রীকেই কৃতিত্ব দিয়েছেন মোদী। বলেছেন, ‘‘সাইক্লোনের মোকাবিলা কী ভাবে করতে হয়, দেশকে তার পথ দেখিয়েছে ওড়িশা।’’

যে ভাবে ফণীর মোকাবিলা করেছে ওড়িশা, তার প্রশংসা করেছে রাষ্ট্রপুঞ্জও। অনেকেই মনে করছেন, এর পরে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে আজ নবীনের প্রশংসা করা ছাড়া অন্য কোনও রাস্তা খোলা ছিল না। রাজ্যের ভোটপর্ব কেটে যাওয়ায় এটাই স্বাভাবিক ছিল। কয়েক সপ্তাহ আগেই ওড়িশায় ভোট প্রচারে গিয়ে মোদী অবশ্য মন্তব্য করেছিলেন, ‘‘আমি নবীনবাবুকে জানিয়ে দিতে চাই, এ বার আপনার গদি ওল্টাতে চলেছে। এতে কোনও সন্দেহই নেই। কয়েকজন আমলা আপনাকে রক্ষা করতে পারবে না।’’ আর বিধানসভা ভোটে নিজের জয় সম্পর্কে এতটাই নিশ্চিত ছিলেন নবীন যে তাঁর পরের বারের শপথে আসার জন্য মোদীকে আগাম আমন্ত্রণ জানিয়ে রেখেছেন তিনি! তবে ঘূর্ণিঝড় বদলে দিয়েছে অনেক কিছু। যে ভাষায় আজ নবীনের প্রশংসা করেছেন মোদী, তাতে ভবিষ্যতের রাজনীতির অঙ্ক দেখছেন অনেকেই।

আরও পড়ুন: মোদী দিলেন দশ আর দিদি দিলেন গোল্লা

 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন