মুম্বই বিস্ফোরণ মামলার ২৫ বছর পর বড়সড় সাফল্য পেল সিবিআই। ১৯৯৩-এর ওই হামলার মূল চক্রী দাউদ ইব্রাহিমের ঘনিষ্ঠ সঙ্গী ফারুক টাকলাকে দুবাইতে গ্রেফতার করল তারা। সিবিআই সূত্রে খবর, বৃহস্পতিবার সকালে ফারুককে দুবাই থেকে মুম্বই আনা হয়েছে।

১৯৯৩-এ ১২ মার্চ দুপুরে পর পর ১৩টি বিস্ফোরণে কেঁপে উঠেছিল মুম্বই। ওই হামলায় নিহত হয়েছিলেন ২৫৭ জন। জখম হন ৭০০-রও বেশি মানুষ। ওই হামলায় অন্যতম অভিযুক্ত ছিলেন ইয়াসিন মনসুর মহম্মদ ফারুক ওরফে ফারুক টাকলা। ওই ঘটনার পর থেকেই পলাতক ছিল সে। ১৯৯৫-এ তাঁর বিরুদ্ধে রেড কর্নার নোটিশ জারি করে ইন্টারপোল।

সিবিআইয়ের দাবি, মুম্বই বিস্ফোরণের অন্য অভিযুক্তদের দুবাইয়ে নানা ভাবে সাহায্য করেছিল ফারুক তার ভাই মহম্মদ আহমেদ মনসুর। এর পর ওই অভিযুক্তদের পাকিস্তানে অস্ত্র প্রশিক্ষণের জন্য পাঠানো হয়েছিল। মনসুরকে সিবিআই গ্রেফতার করলেও অধরা ছিল ফারুক। পরে অবশ্য উপযুক্ত প্রমাণের অভাবে ছাড়া পেয়ে যায় মনসুর।

আরও পড়ুন: শর্তসাপেক্ষে আত্মসমর্পণ করতে চান দাউদ ইব্রাহিম

আরও পড়ুন: মূর্তি-দায় ঠেলছেন মোদীরা

সিবিআইয়ের মুখপাত্র জানিয়েছেন, এ দিন সকালে দুবাই থেকে এয়ার ইন্ডিয়ার একটি বিমানে ৫৭ বছরের ফারুককে মুম্বইতে আনা হয়। বিমানবন্দর থেকেই তাকে সিবিআই অফিসে নিয়ে যান তদন্তকারীরা। সেখানেই ফারুককে জেরা করা হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে। এ দিনই তাকে টাডা আদালতে তোলা হবে বলে সিবিআই সূত্রের খবর। ফারুকের বিরুদ্ধে মুম্বই বিস্ফোরণ মামলা ছাড়াও খুন, অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র-সহ একাধিক মামলা ঝুলছে।