• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘মোটা’ বলায় সহপাঠীর হাতে খুন ক্লাস সেভেনের ছাত্র

Arrested
প্রতীকী ছবি।

Advertisement

গুরুগ্রামে ছাত্র খুনের রেশ কাটতে না কাটতেই ফের ছাত্র মৃত্যুর খবর মিলল দিল্লির একটি বেসরকারি স্কুলে। ক্লাসেরই এক সহপাঠীর সঙ্গে ধস্তাধস্তির সময় মাথায় লেগে মৃত্যু হয় সপ্তম শ্রেণির ওই ছাত্রের। প্রত্যক্ষদর্শীদের কথায়, ঝগড়া চলার সময় ওই ছাত্রের মাথা দেওয়ালে ঠুকে দেয় তার সহপাঠী। তাতেই মৃত্যু হয় ওই ছাত্রের। ঘটনায় অনিচ্ছাকৃত খুনের মামলা রুজু করে অভিযুক্ত ছাত্রকে আটক করেছে পুলিশ।

আরও পড়ুন: 

‘আপনি বিয়ে কবে করবেন?’, রাহুল গাঁধীকে ‘আপার কাট’ বিজেন্দ্রর

এক রাতেই বদলে গেল গল্প, খুনি খোদ অভিযোগকারী স্বামীই

ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার। নিহত ছাত্র আদেশ কুমারের বয়স মাত্র ১৩। দিল্লির কারাওয়াল নগরের বাসিন্দা আদেশ সরস্বতী জ্ঞান পাবলিক স্কুলের সপ্তম শ্রেণিতে পড়ত। ক্লাসের অন্য ছাত্রদের কথায়, আদেশ তার এক সহপাঠীকে প্রায়ই ‘মোটা’ বলে বিদ্রুপ করত। সেই নিয়ে দু’জনের মধ্যে ঝগড়া লেগেই থাকত। ঘটনার দিন আদেশ ফের ওই ছাত্রটিকে একই ভাবে বিদ্রুপ করে। সেই সময় ক্লাসে শিক্ষিকা ছিলেন না। দু’জনের মধ্যে কথা কাটাকাটি শুরু হয়ে যায়। সেখান থেকে হাতাহাতি। প্রত্যক্ষদর্শী সহপাঠীদের কথায়, ধস্তাধস্তির সময় আদেশের মাথা দেওয়ালে ঠুকে দেয় ওই ছাত্র। তাতেই জ্ঞান হারায় আদেশ। প্রাথমিক ভাবে তাকে একটি স্থানীয় বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। অবস্থার অবনতি হলে আদেশকে সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই চিকিত্সকেরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

পুলিশ জানিয়েছে, মাথা বাদে আদেশের শরীরে আর কোনও ক্ষতের চিহ্ন ছিল না। প্রাথমিক তদন্তে অনুমান, মাথায় চোটের কারণেই মৃত্যু হয়েছে তার।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন