দিল্লিতে তরুণী চিকিৎসকের অস্বাভাবিক মৃত্যু। বুধবার দিল্লির রঞ্জিত নগরে বছর পঁচিশের এই তরুণী চিকিৎসকের মৃতদেহ মিলল। তাঁর গলার নলি কাটা ছিল।

পুলিশ জানিয়েছে, নিজের বাড়িতেই মৃতদেহ মেলে ওই চিকিৎসকের। চিকিৎসকের নাম গরিমা মিশ্র। তিনি এমবিবিএসের পাঠ শেষ করেছিলেন। এর পর এমডি পরীক্ষার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন।

পুলিশ সূত্রে খবর, ওই চিকিৎসকের দুই প্রতিবেশীও এই ঘটনার পর থেকে নিখোঁজ। তাঁদের খোঁজে শুরু হয়েছে তল্লাশি। এঁদের মধ্যেও একজন চিকিৎসক। তিনিও এমডি পরীক্ষার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন বলেই জানিয়েছে পুলিশ।

আরও পড়ুন: গঢ়চিরৌলীতে মাওবাদী হামলা, বিস্ফোরণে নিহত অন্তত ১৫ কমান্ডো, গাড়ির চালক​

পুলিশ জানিয়েছে, মেধাবী ছাত্রী হিসাবেই পরিচিতি ছিল গরিমার। কী কারণে এই ঘটনা ঘটল, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। ডিসিপি সেন্ট্রাল মনদীপ সিং রান্ধোয়া জানান, মেয়েটিকে দেখতে তাএঁর এক আত্মীয় এসেছিলেন। তিনিই মৃতদেহ দেখে পুলিশে খবর দেন।

আরও পড়ুন: ছোট পোশাক পরতে দেখলেই ধর্ষণ করুন, মহিলার মন্তব্য ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়

প্রাথমিক তদন্তে অনুমান, খুন করা হয়েছে এই তরুণী চিকিৎসককে। তরুণীর দেহে বেশ কিছু দাগ রয়েছে, যেগুলি দেখে মনে করা হচ্ছে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করা হয়েছে বার বার। পুলিশ এও জানায়, মেয়েটির সঙ্গে পলাতক যুবক একসঙ্গেই এমডি পরীক্ষার জন্য পড়াশোনা করছিলেন।