• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

চোক্সীর পুরনো মামলাতেও তদন্ত

Delhi high court
—ফাইল চিত্র।

পিএনবি কেলেঙ্কারিতে তদন্ত চলছে নীরব মোদীর মামা মেহুল চোক্সীর বিরুদ্ধে। এ বার পুরনো একটি প্রতারণার মামলায় তাঁর বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করার নির্দেশ দিল দিল্লি হাইকোর্ট।

চোক্সীর বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগটি এনেছিলেন বি টেক স্নাতক বৈভব খুরানিয়া। ২০১৬ সালে সেই অভিযোগের ভিত্তিতে চোক্সীর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করার নির্দেশ দিয়েছিল নিম্ন আদালত। দক্ষিণ দিল্লির অমর কলোনি থানায় দায়ের করা হয় এফআইআর। এফআইআরটি খারিজ করার জন্য সেই বছরেই দিল্লি হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন চোক্সী। আজ সেই মামলায় তদন্ত করে রিপোর্ট জমা দিতে পুলিশকে নির্দেশ দিলেন বিচারপতি মুক্তা গুপ্ত।

চোক্সীর বিরুদ্ধে অভিযোগটি কী?

খুরানিয়া এবং তাঁর সহকর্মী দীপক বনশল তৈরি করেছিলেন আরএম গ্রিন সলিউশন সংস্থা। সেই সংস্থা চোক্সীর কাছ থেকে গীতাঞ্জলি জুয়েলার্সের একটি ফ্র্যাঞ্চাইজি কিনেছিল। সেই ব্যাপারে গীতাঞ্জলি জেমস এবং মেহুল চোক্সীর সঙ্গে একটি চুক্তি হয়েছিল খুরানিয়া এবং বনশলের। অভিযোগ, চোক্সী প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন দেড় কোটি টাকার ‘সিকিউরিটি ডিপোজিট’ দিলে তিনি তাঁদের তিন কোটি টাকার হিরের গয়না এবং অন্য সামগ্রী দেবেন। ২০১৩ সালের অক্টোবরে পশ্চিম দিল্লির রাজৌরি গার্ডেনে ফ্র্যাঞ্চাইজিটি খোলার পরে দেখা যায় হিরের গয়না এবং অন্য সামগ্রীগুলি তৃতীয় শ্রেণির। দাম বড় জোর ৫০ থেকে ৭০ লক্ষ টাকা! এর পরেই চোক্সীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন বৈভব। এ দিন চোক্সীর বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ দেওয়ার পাশাপাশি দিল্লি হাইকোর্ট জানিয়েছে, অভিযোগকারী এবং অভিযুক্ত একটা মধ্যস্থতায় আসার চেষ্টা করছিলেন। সেই কারণে তদন্ত বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। তবে
হাইকোর্ট এটাও জানিয়েছে, চোক্সীর বিরুদ্ধে কোনও কড়া পদক্ষেপ আটকাতে গত এপ্রিলে তাঁকে যে অন্তর্বর্তীকালীন সুরক্ষা দেওয়া হয়েছিল, তা বজায় থাকবে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন