ভূমিকম্পের দাপটে কেঁপে উঠল দিল্লি-সহ গোটা উত্তর ভারত। আবহাওয়া অফিস থেকে জানানো হয়েছে, শুধুমাত্র ভারতই নয়, পাকিস্তানেও এই কম্পন অনুভূত হয়েছে। বুধবার ১২টা ৪০ মিনিটে এই কম্পন অনুভূত হয়। রিখটার স্কেলে কম্পনের মাত্রা ছিল ৬.১।

কম্পনের জেরে পাকিস্তানের বালুচিস্তানে বাড়ির ছাদ ভেঙে অন্তত একটি শিশুর মৃত্যু হয়েছে। আহত তার পরিবারের ন’জন সদস্য।

ইউরোপিয়ান মেডিটেরানিয়ান সিসমোলজিক্যাল সেন্টারের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, আফগানিস্তান-তাজিকিস্তান সীমান্তে কাবুল থেকে ২৭০ কিলোমিটার উত্তর-পূর্বে হিন্দুকুশ পর্বতমালায় এ দিন প্রথম ভূমিকম্প হয়। ১৯০ কিলোমিটার গভীরে ছিল এর উৎসস্থল।

এ দিন দুপুরে দিল্লি ও তার আশপাশের অঞ্চল, কাশ্মীর উপত্যকা-সহ গোটা উত্তর ভারত জুড়ে এই কম্পনের দাপট টের পাওয়া যায়। কম্পনের প্রভাবে ওই এলাকার মানুষজনের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। অনেকেই ঘর-বাড়ি ছেড়ে রাস্তায় বেরিয়ে আসেন। সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে নয়াদিল্লিতে সাময়িক সময়ের জন্য মেট্রো পরিবেষা বন্ধ রাখা হয়। তবে রাজধানীতে কোনও ক্ষয়ক্ষতি হয়নি বলে জানিয়েছে দিল্লি প্রশাসন।

আরও পড়ুন: ঊনত্রিশ সেকেন্ডের ফোন কলই ডেকে আনল বিপর্যয়

আরও পড়ুন: কাসগঞ্জকে ঘিরে পাকিস্তান-বিতর্ক

গ্রাফিক্স: শৌভিক দেবনাথ।

এই ধরনের খবর আপনার ইনবক্সে সরাসরি পেতে এখানে ক্লিক করুন

দিল্লির মতোই ভূকম্পনের ফলে আতঙ্কের প্রায় একই ছবি দেখা গিয়েছে শ্রীনগরে। সংবাদ সংস্থা পিটিআই সূত্রে খবর, কম্পনের জেরে শ্রীনগরের আলুচিবাগে একটি নির্মীয়মাণ ব্রিজের গার্ডার খুলে পড়ায় তার কয়েকটি স্তম্ভ ভেঙে পড়ে। তবে ওই ঘটনায় কোনও হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।