রবার্ট বঢরার আগাম জামিনের বিরোধিতা করল এনফের্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। আগাম জামিন নিয়ে রবার্ট দেশ ছেড়ে পালাতে পারেন, তাই তাঁকে হেফাজতে নিয়ে মামলা চালানোর প্রয়োজন বলে বৃহস্পতিবার আদালতে জানায় ইডি।

ব্যবসায়ী তথা প্রিয়ঙ্কা গাঁধীর স্বামী রবার্ট বঢরার বিরুদ্ধে অর্থ নয়ছয়ের একটি মামলা দায়ের করেছিল ইডি। সেই মামলায় গত ১ এপ্রিল আগাম জামিন পেয়েছেন বঢরা। নিম্ন আদালতের সেই রায় চ্যালেঞ্জ করেই জামিন খারিজের আর্জি জানিয়ে দিল্লি হাইকোর্টে রিট পিটিশন দাখিল করে ইডি। সেই মামলার শুনানিতেই ইডি আগাম জামিন খারিজের আর্জি জানানো হল। ৫ নভেম্বর এই মামলার রায় দেবেন বিচারপতি।

ইডির তরফে আদালতে জানানো হয়, নামে বা বেনামে লন্ডনে অন্তত ন’টি স্থাবর সম্পত্তি রয়েছে রবার্টের। যার আর্থিক মূল্য প্রায় ১ কোটি ২০ লক্ষ পাউন্ড। সেই ৯টি সম্পত্তির মধ্যে রয়েছে তিনটি ভিলা। বাকিগুলি বিলাসবহুল ফ্ল্যাট। সেই সবই কেনা হয়েছিল ২০০৫ থেকে ২০১০ সালের মধ্যে, যখন কেন্দ্রে ক্ষমতাসীন ছিল কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএ সরকার।

আরও পড়ুন: হাফিজ সইদকে টাকা তোলার অনুমতি দিতে আবেদন পাকিস্তানের, সায় রাষ্ট্রপুঞ্জের

ইডির তরফে আদালতে এও জানানো হয়েছে, লন্ডনের ১২, ব্রায়ানস্টন স্কোয়ারে ওই সময় একটি ম্যানসনও কিনেছিলেন রবার্ট। জড়িত ছিলেন হরিয়ানা ও রাজস্থানে জমি কেনাবেচাতেও। যদি রবার্ট বঢরা এ সব অভিযোগ বারবারই অস্বীকার করে আসছেন। তিনি তদন্তেও সব রকম সাহায্য করছেন বলে জানিয়েছেন।