দেশের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে বিস্ফোরক টুইট করলেন অভিনেতা ফারহান আখতার। শুক্রবার নিজের টুইটারে ফারহান দাবি করলেন, দেশের পরিশ্রমী মানুষ সর্বস্ব হারিয়ে আত্মহত্যা করছেন। আর চোরেরা আইন ফাঁকি দিয়ে দিব্যি ঘুরে বেড়াচ্ছে। পরিস্থিতি সম্পর্কে উদ্বেগ প্রকাশ করে ফারহানের আর্জি, সাধারণ মানুষের পরিশ্রমের টাকা যেন লোপাট না হয়ে যায়।

বৃহস্পতিবার ফারহান আখতার টুইটারে লেখেন, ‘‘বর্তমানে অবস্থাটা এমন দাঁড়িয়েছে যে সৎ ও পরিশ্রমী মানুষজন আত্মহত্যা করতে বাধ্য হচ্ছেন।’’ পোস্টটি তিনি শেয়ার করার পরেই ওই পোস্টের নীচে মন্তব্যের ঝড় শুরু হয়। ফারহানের ভক্তরা তুলে এনেছেন পঞ্জাব অ্যান্ড মহারাষ্ট্র কো-অপারেটিভ (পিএমসি) ব্যাঙ্কের আ্রর্থিক অপরাধের কথা। ৪,৩৫৫ কোটি টাকার এই বিপুল কেলেঙ্কারি বিড়ম্বনায় ফেলেছে ১৬ লক্ষ বিনিয়োগকারীকে। গত দুই দিন হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারাও গিয়েছেন দুই বিনিয়োগকারী। পিএমসি ঘটনার সামনে আসার পরেই আরবিআই টাকা তোলার ব্যাপারে কড়াকড়ি শুরু করেছিল, ধাপে ধাপে বাড়ানো হয় টাকা তোলার উচ্চসীমা। ফারহানের পোস্টে এই ঘটনার কড়া নিন্দা করেছেন নেটিজেনরা।

দেশে একের পর এক ঘটে যাওয়া আর্থিক কেলেঙ্কারিতে জড়িত মানুষদেরও ফারহান এদিন একহাত নিয়েছেন। টুইটারে ফারহান লিখেছেন, ‘‘চোরেরা আইন ফাঁকি দিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে অক্লেশে।’’ ‘ভাগ মিলখা ভাগ’ খ্যাত গায়ক-অভিনেতা চান, সৎ পরিশ্রমী মানুষরা যাতে নিজেদের টাকা ফিরে পান। আর অপরাধীদের যাতে কঠিনতম শাস্তি দেওয়া হয়।

পড়ুন সেই টুইট

আরও পড়ুন:‘বিরোধীদের দোষ দিতে মরিয়া সরকার’, কড়া সমালোচনা মনমোহনের
আরও পড়ুন:‘‘শুধু সাভারকার নয়, ভারতরত্ন দিন নাথুরাম গডসেকেও’’, বিজেপিকে তোপ ওয়েইসির

বোঝাই যাচ্ছে, বিজয় মাল্য, নীরব মোদী বা প্রাক্তন পিএমসি কাণ্ডে অভিযুক্ত ওই ব্যাঙ্কের প্রাক্তন প্রধান জয় থমাসের দিকেই অভিযোগের আঙুল ফারহানের।