• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

আজ জেরা ফ্যাব ইন্ডিয়ার ২ কর্তাকে

চার অভিযুক্ত জামিন পেয়েছিলেন আগেই। কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী স্মৃতি ইরানির ‘ট্রায়াল রুম কাণ্ডে’ আগাম জামিন পেলেন কালাঙ্গুটে ফ্যাব ইন্ডিয়ার বিপণির স্টোর ম্যানেজার চৈত্রালি সবন্ত। চৈত্রালি তাঁর আইনজীবীর মাধ্যমে আগাম জামিনের আবেদন জানান। এ দিন গোয়ার এক আদালত জানায়, চৈত্রালিকে হেফাজতে রেখে জেরা করার কোনও প্রয়োজন নেই পুলিশের। কারণ শুক্রবার ঘটনার সময় তিনি ওই দোকানে হাজির ছিলেন না। তবে কাল, মঙ্গলবারই সংস্থার দুই উচ্চপদস্থ কর্তাকে জেরা করা হবে বলে পুলিশ সূত্রে খবর।

দিন দু’য়েকের জন্য স্বামীর সঙ্গে গোয়ায় ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন স্মৃতি। গত শুক্রবার কালাঙ্গুটে ফ্যাব ইন্ডিয়ার দোকানে কেনাকাটা করতে যান তিনি। অভিযোগ, ট্রায়াল রুমে স্মৃতি যখন পোশাক বদলাচ্ছিলেন তখন তিনি দেখতে পান, এক ক্যামেরায় ছবি উঠছে তাঁর। বিষয়টা নিয়ে প্রবল বিতর্ক তৈরি হয়। কালাঙ্গুটের বিজেপি বিধায়ক মাইকেল লোবো এফআইআর রুজু করেন। ধরা হয় ওই সংস্থারই চার কর্মীকে। কিন্তু তাঁরা জামিন পেয়ে যান। এ দিন আগাম জামিন পান স্টোর ম্যানেজার চৈত্রালি। তবে পুলিশ জানিয়েছে, আগামিকাল ফ্যাব ইন্ডিয়ার দুই উচ্চপদস্থ কর্তাকে জেরা করা হবে। ইতিমধ্যেই সংস্থার সিইও সুব্রত দত্ত ও এমডি উইলিয়াম বিসসেলকে সমন পাঠিয়েছে গোয়ার ক্রাইম ব্রাঞ্চ।

তবে এ ঘটনায় সংস্থা বা সংস্থার কর্তাব্যক্তিদের আদৌ কোনও ভাবে দায়ী করা উচিত কি না, সে নিয়ে দ্বিমত রয়েছে গোয়ার শাসক দল বিজেপির মধ্যেই। এক দিকে, গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী লক্ষ্মীকান্ত পারসেকার মনে করেন, ফ্যাব ইন্ডিয়ার মতো নামী সংস্থাকে স্মৃতির হেনস্থার জন্য দায়ী করা উচিত নয়। এ শুধু হাতেগোনা কিছু কর্মীরই কারসাজি, দাবি পারসেকারের। অন্য দিকে, কালাঙ্গুটের বিজেপি বিধায়ক মাইকেল লোবো বলেন, ‘‘ফ্যাব ইন্ডিয়ার কর্তাব্যক্তিদের অতি অবশ্যই গোটা ঘটনার দায় নেওয়া উচিত। ’’

এ বিতর্কের জেরেই আবার নতুন করে প্রাণ পাচ্ছে কোলহাপুরের ঘটনা। বেরিয়ে আসে নয়া তথ্য। কোলহাপুরে ফ্যাব ইন্ডিয়ারই এক দোকানের ট্রায়াল রুমে মহিলার পোশাক বদলের ছবি মোবাইল ক্যামেরায় তুলছিলেন সংস্থার এক কর্মী। বিষয়টি নিয়ে পুলিশে এফআইআর করেন ওই মহিলার স্বামী। গ্রেফতার হন অভিযুক্ত।

ওই মহিলার স্বামী বলেন, ‘‘আমার স্ত্রীর চিৎকার শুনে অভিযুক্ত কর্মী প্রথমে ছুটে স্টাফরুমে ঢুকে যায়। কেউ ওকে ধাওয়াও করেনি। হঠাৎ বেরিয়ে এসে ফোনটা আমাদের হাতে তুলে দিয়ে বলে ওর ফোনে অশ্লীল ভিডিও ছিল বলে ও ফোনটা দেখাতে রাজি ছিল না।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন