• সংবাদসংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পুলিশের বিরুদ্ধে খুনের মামলার নির্দেশ দিল হাইকোর্ট

Jeyaraj and Beniks
তুতিকোরিনে পুলিশি হেফাজতে নিহত বাবা ও ছেলে। ফাইল চিত্র।

তুতিকোরিনে পুলিশি হেফাজতে অত্যাচারের জেরে বাবা ও ছেলের মৃত্যুর ঘটনায় অভিযুক্ত পুলিশকর্মীদের বিরুদ্ধে খুনের মামলা দায়ের করার নির্দেশ দিল মাদ্রাজ হাইকোর্ট। ব্যবসায়ী পি জয়রাজ ও তাঁর ছেলে জে বেনিক্সের ময়নাতদন্তের রিপোর্ট খতিয়ে দেখে মঙ্গলবার আদালতের মন্তব্য, ‘‘অভিযুক্ত পুলিশকর্মীদের বিরুদ্ধে খুনের মামলা রুজুর সঙ্গত কারণ রয়েছে।’’

সান্থনকুলম এলাকায় পুলিশ হেফাজতে অত্যাচারের ঘটনায় অভিযুক্ত দুই সাব-ইনস্পেক্টর এবং এক কনস্টেবলকে ইতিমধ্যেই সাসপেন্ড করেছে তামিলনাড়ু সরকার। তাঁদের বিরুদ্ধেই এদিন খুনের মামলা রুজুর নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। সরানো হয়েছে তুতিকোরিন জেলা পুলিশ সুপার অরুণ বালগোপালনকে। তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী ই কে পলানীস্বামী ঘটনার সিবিআই তদন্তের সিদ্ধান্তও ঘোষণা করেছেন।

স্থানীয় বিচারবিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেটের রিপোর্টে পুলিশ হেফাজতে অত্যাচারের ঘটনার তদন্তে বাধা দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে, তুতিকোরিনের ডিএসপি সি প্রথপন, অতিরিক্ত ডিএসপি ডি কুমার এবং কনস্টেবল মহারাজনের বিরুদ্ধে। পুলিশি অত্যাচারের তদন্তের কাজে নিযুক্ত বিচারবিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেটের কাজে বাধাদানের বিরুদ্ধে এদিন ওই তিন পুলিশকর্মীর বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলা করার নির্দেশ দিয়েছে মাদ্রাজ হাইকোর্ট।

আরও পড়ুন: পুলিশ হাজতে বাবা-ছেলে ‘খুনে’ সিবিআই তদন্ত

লকডাউনের নির্ধারিত সময়সীমা পেরিয়ে যাওয়ার ১৫ মিনিট পরেও দোকান খোলা রাখার অভিযোগে গত ১৯ জুন রাতে ৫৯ বছরের জয়রাজকে ধরে নিয়ে গিয়েছিল পুলিশ। ৩১ বছরের বেনিক্স বাবার খোঁজে থানায় গেলে তাঁকেও আটক করা হয়। অভিযোগ, গ্রেফতারের পরে রাতভর বাবা ও ছেলের উপর অত্যাচার চালান তিন পুলিশকর্মী। ২২ জুন সকালে বেনিক্সকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। সেদিনই তিনি মারা যান। পরের দিন মারা যান জয়রাজ। ময়নাতদন্তের রিপোর্টে দু’জনের দেহের ভিতরে এবং বাইরে একাধিক ক্ষতচিহ্নের কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: ওষুধ কারখানা থেকে গ্যাস লিক করে মৃত ২, অসুস্থ ৪, এ বারও বিশাখাপত্তনমে​

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন