সকালে জনবহুল রাস্তায় স্কার্ট ধরে টানাটানি করে এক মডেলের শ্লীলতাহানির চেষ্টা করল দুষ্কৃতীরা। নিজেকে বাঁচাতে গিয়ে টাল সামলাতে না পেরে রাস্তায় পড়ে হাত, পা ছড়ে যায় ওই মডেলের। হাতা, পায়ের কেটে-ছড়ে যাওয়া অংশগুলি থেকে রক্ত বেরতে থাকে। পরে এক প্রবীণ এসে তাঁকে উদ্ধার করেন।

ঘটনাটি ঘটেছে ইনদওরে, একটি জনপ্রিয় শপিং মলের সামনে। রবিবার সকালে।

পরে সেই মডেলের করা টুইটের ভিত্তিতে কয়েকটি সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এই খবর দিয়েছে। তাঁর টুইটে মধ্যপ্রদেশের ওই জনপ্রিয় মডেল অভিযোগ করেছেন, রবিবার সকালে তিনি যখন স্কুটার চালিয়ে যাচ্ছিলেন ইনদওরের একটি জনবহুল রাস্তায়, তখন একটি মোটরবাইকে চেপে দু’জন এসে তাঁর পথ রুখে দাঁড়ায়। বাইক থেকে নেমে তারা মডেলের স্কার্ট ধরে টানাটানি করতে থাকে। আর চেঁচিয়ে বলতে থাকে, ‘‘দিখাও, ইস্‌কে নীচে কেয়া হ্যায়?’’ ওই দু’জনের হাত থেকে নিজেকে বাঁচাতে তাড়াতাড়ি স্কুটার থেকে নামতে গিয়ে রাস্তায় পড়ে যান সেই মডেল। তাতে তাঁর হাত-পা ছড়ে যায়। রক্ত বেরতে থাকে হাত, পায়ের কেটে-ছড়ে যাওয়া অংশগুলি থেকে। মডেলের অভিযোগ, সকালে ব্যস্ত রাস্তায় ওই ঘটনার সময় কেউই এগিয়ে আসেননি তাঁকে সাহায্য করতে। যে প্রবীণ ভদ্রলোক পরে এসে তাঁকে উদ্ধার করেন, তিনিও নাকি স্কার্ট পরার জন্য কিছুটা বকাঝকা করেন ওই মডেলকে। টুইটে তাঁর হাত, পায়ের কেটে-ছড়ে যাওয়া অংশের ছবিও দিয়ে দেন ওই মডেল।

টুইটে ওই মডেল লিখেছেন, ‘‘আমি তখন ব্লগারদের একটি আলোচনাসভা থেকে ফিরছিলাম। স্কার্ট পরে স্কুটার চালাচ্ছিলাম। সেই সময় বাইকে চেপে এসে দু’জন আমার পথ আটকে দাঁড়ায়। ওরা আমার স্কার্ট ধরে টানাটানি করতে শুরু করে। আর বলতে থাকে, ‘‘দিখাও, ইস্‌কে নীচে কেয়া হ্যায়? কয়েক মুহূর্তের ঘটনা। কিন্তু সব কিছু দেখলেও, কেউই এসে ওদের বাধা দেননি।’’

আরও পড়ুন- স্কুলে তুলে নিয়ে গিয়ে শিশুকে ধর্ষণ, এ বার ওডিশায়​

আরও পড়ুন- মাকে ধর্ষণ! গুজরাতে গ্রেফতার পর্ন-আসক্ত তরুণ​

টুইটে ওই মডেল জানিয়েছেন, কিছু ক্ষণ পর দুই দুষ্কৃতী বাইক চালিয়ে উধাও হয়ে যায়। ঘটনাটা এত তাড়াতাড়ি ঘটে যে বাইকের নাম্বার প্লেটও পড়ে ওঠার ফুরসৎ পাননি ওই মডেল।

যে প্রবীণ ভদ্রলোক পরে উদ্ধার করেন তাঁকে, টুইটে তাঁর একটি মন্তব্য নিয়েও বিরক্তি প্রকাশ করেছেন ওই মডেল। তাঁর বক্তব্য, ‘‘ওই ভদ্রলোক আমাকে বলছিলেন, আমি কেন স্কার্ট পরেছি? এতে আমি খুব বিরক্ত হয়েছি। আমি পোশাক তো পরব আমার ইচ্ছে মতো। ওই পোশাক পরেছি বলে তো কেউ ওই দুষ্কৃতীদের অধিকার দেয়নি এমন আচরণ করার।’’

টুইটে ওই মডেল লিখেছেন, ঘটনার কিছু ক্ষণ পর তিনি ফের যান ওই এলাকায়। ওই দু’জনকে কেউ পরে দেখেছেন কি না, জানতে চান সেখানকার লোকজনের কাছে। কিন্তু কেউই তাঁকে কিছু বলতে পারেননি। কোনও সিসিটিভি ক্যামেরাও ছিল না শপিং মলের লাগোয়া ওই এলাকায়।

ইনদওর পুলিশের ডেপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল (ডিআইজি) হরিনারায়ণচারী মিশ্র বলেছেন, ‘‘আমরা এ ব্যাপারে এখনও পর্যন্ত কোনও লিখিত অভিযোগ পাইনি। পেলে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’’