বর্ধমানের খাগড়াগড় বিস্ফোরণের পর থেকেই কেন্দ্রের নিশানায় ছিল জামাত-উল-মুজাহিদিন বাংলাদেশ (জেএমবি) জঙ্গিগোষ্ঠী। তাদের গতিবিধির উপরও কড়া নজর রাখা হচ্ছিল। সেই জেএমবি জঙ্গিগোষ্ঠীকে এ বার ইউএপিএ আইনে নিষিদ্ধ ঘোষণা করল ভারত। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক এ বিষয়ে একটি নোটিস জারি করেছে।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের সেই নোটিসে বলা হয়, পশ্চিমবঙ্গ, অসম, ত্রিপুরা— এই তিন রাজ্যের বাংলাদেশ সীমান্তে লাগোয়া বেশ কয়েকটি জেলাতে তাদের বেস ক্যাম্প তৈরি করার পরিকল্পনা করছে জেএমবি। শুধু তাই নয়, দক্ষিণ ভারতে তাদের নেটওয়ার্ক বিস্তার করার চেষ্টা করছে এই জঙ্গিগোষ্ঠী।

বাংলাদেশের এই জঙ্গিগোষ্ঠী ভারতের বিভিন্ন প্রান্তে ইতিমধ্যেই তাদের নেটওয়ার্ক ছড়িয়ে দিয়েছে। যুব সম্প্রদায়ের প্রভাবিত করে তাদের নিজেদের দলে ভেড়াচ্ছে। জঙ্গি কার্যকলাপে উত্সাহিত করছে। ভারতে জঙ্গি কার্যকলাপ চালানোর জন্য অর্থ জোগান দিচ্ছে বলেও ওই নোটিসে জানিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক।  

২০১৪-য় খাগড়াগড় বিস্ফোরণে নাম উঠে আসে জেএমবি জঙ্গিগোষ্ঠীর। এর পর ২০১৬-য় ঢাকার গুলশনে হোলি আর্টিসান বেকারিতে জঙ্গি হামলা চালায় এই জঙ্গিগোষ্ঠী। সেই ঘটনায় ২০ জনের মৃত্যু হয়।

আরও পড়ুন: ফল বেরতেই তাণ্ডব গোরক্ষকদের, গাছে বেঁধে পেটানো হল মহিলা-সহ ৩ মুসলিমকে

আরও পড়ুন: বহু মুসলিমপ্রধান আসনেও সাফল্য এসেছে বিজেপির, জানেন?