• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

২০১৬-তেই সার্জিকাল হানা, দাবি সেনা-কর্তার

ranbir singh
সেনার নর্দার্ন কম্যান্ডের প্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল রণবীর সিংহ। ছবি সৌজন্য টুইটার।

২০১৬ সালের সেপ্টেম্বর মাসেই ভারতীয় সেনা প্রথম সার্জিকাল স্ট্রাইক চালায় বলে দাবি করলেন সেনার নর্দার্ন কম্যান্ডের প্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল রণবীর সিংহ।

২০১৬ সালে উরি হামলার পরে পাক-অধিকৃত কাশ্মীরে সার্জিকাল স্ট্রাইক এবং পুলওয়ামার পরে বালাকোটে বায়ুসেনার অভিযানকে লোকসভা ভোটের প্রচারে অস্ত্র করেছেন নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহরা। জবাবে কংগ্রেস এ বার দাবি করেছে, ইউপিএ আমলেও একাধিক বার সার্জিকাল স্ট্রাইক চালানো হয়েছিল। কিন্তু কংগ্রেস সামরিক বাহিনীকে নিয়ে রাজনীতি করতে চায় না। তাই সেনার অভিযান নিয়ে প্রচার হয়নি তখন।

সম্প্রতি তথ্যের অধিকার আইনে এক প্রশ্নের জবাব দিতে গিয়ে সেনার ডিরেক্টর জেনারেল অব মিলিটারি অপারেশনস জানিয়েছেন, ২০১৬ সালেই প্রথম সার্জিকাল স্ট্রাইক চালিয়েছিল সেনা। আজ এক প্রশ্নের জবাবে রণবীর সিংহ বলেন, ‘‘রাজনৈতিক দলগুলি কী বলছে তা নিয়ে মন্তব্য করতে চাই না। তবে সেনার তরফে যা বলা হয়েছে তা সঠিক।’’

ভারতীয় সেনাবাহিনীর প্রাক্তন প্রধান জেনারেল শঙ্কর রায়চৌধুরীর  মতে, ‘সার্জিকাল স্ট্রাইক’ শব্দবন্ধটি চালু হয়ে গিয়েছে। তাঁরে বক্তব্য, ‘‘সার্জিকাল স্ট্রাইকের অর্থ যদি নির্দিষ্ট লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানা হয় তবে ভারতের সামরিক বাহিনী আগেও সে কাজ করেছে। ১৯৭১ সালের যুদ্ধের সময়ে করাচি বন্দর আক্রমণ করেছিল নৌসেনা। কিন্তু করাচি শহরের ক্ষতি হয়নি। আবার ওই যুদ্ধের সময়েই ঢাকার রাজভবনকে লক্ষ্য করে অভিযান চালায় বায়ুসেনা। তাতে রাজভবনের গম্বুজ ধ্বংস হয়ে গিয়েছিল।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন