ইন্ডিগোর উড়ান ছাড়তে দেরি করায় একদল ক্ষুব্ধ যাত্রী বিমান থেকে নেমে পড়লেন টারম্যাকে। সংবাদ সংস্থার খবর, ট্যাক্সিওয়ের সামনে দাঁড়িয়ে তাঁরা বিক্ষোভও দেখান।

ঘটনাটি বুধবার রাতে দিল্লি বিমানবন্দরের। ধুলোঝড়ে বিধ্বস্ত রাজধানীর আকাশ থেকে তত ক্ষণে ২১টি বিমান মুখ ঘুরিয়ে অন্যত্র চলে গিয়েছে। লন্ডভন্ড হয়ে গিয়েছে উড়ানসূচি। ইন্ডিগোর এই বিমানটির বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় দিল্লি থেকে গুয়াহাটি যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু অন্য শহর থেকে দিল্লি আসতে বিমানটির দেরি হয়। ১৭৭ জন যাত্রীকে সওয়া ৮টার সময়ে বিমানে তোলা শুরু হয়। তার পরে জানা যায়, যে পাইলট ও বিমানকর্মীদের সেই উড়ানে যাওয়ার কথা, তাঁদের ডিউটির সময় শেষ। সংবাদ সংস্থা জানিয়েছে, যাত্রীদের একাংশের অভিযোগ, কেন উড়ান ছাড়তে দেরি হচ্ছে, তা স্পষ্ট জানানো হয়নি। বিমান সংস্থা এই অভিযোগ মানতে চায়নি।

যেখানে বিমান দাঁড়ায়, যেখান দিয়ে বিমান রানওয়েতে যায় —এই পুরো এলাকাকেই টারম্যাক বলা হয়। এখানে গাড়ি ও লোকের গতিবিধিতে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। অভিযোগ, যে পথে বিমান রানওয়েতে যায়, সেই ট্যাক্সিওয়ের সামনে ক্ষুব্ধ যাত্রীরা দাঁড়িয়ে পড়েন। সিআইএসএফ তাঁদের সরিয়ে দেয়। সংবাদ সংস্থা জানিয়েছে, রাত সাড়ে ১১টায় উড়ানটি দিল্লি ছাড়ে। গুয়াহাটিতে যাত্রীদের হোটেলে রাখার ব্যবস্থা করেছিল বিমান সংস্থা।