আইএনএক্স দুর্নীতি মামলায় দেশের প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরমের অন্তর্বর্তী জামিনের আর্জি খারিজ করে দিল দিল্লি হাইকোর্ট। শারীরিক অসুস্থতার জন্য হায়দরাবাদে চিকিৎসা করাতে চেয়েছিলেন চিদম্বরম। সেই নিয়ে দিল্লির এমসের ৭ সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ডকে রিপোর্ট জমা দিতে নির্দেশ দিয়েছিল আদালত। শুক্রবার চিদম্বরমের আবেদনের শুনানি চলাকালীন সেই রিপোর্টটি জমা পড়ে আদালতে। তাতে বলা হয়, চিদম্বরমের শরীরে অস্বাভাবিক কিছু ধরা পড়েনি। হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার দরকার নেই। তার পরই চিদম্বরমের অন্তর্বর্তী জামিনের আর্জি খারিজ করে দেয় আদালত। আগামী ৪ নভেম্বর তাঁর জামিনের মূল আর্জিটির শুনানি হবে।

এই মুহূর্তে দিল্লির তিহাড় জেলে রয়েছেন পি চিদম্বরম। গত সোমবার সেখানে পেটের যন্ত্রণায় আক্রান্ত হলে তড়িঘড়ি এইমসে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁকে। ছেড়েও দেওয়া হয়  প্রাথমিক চিকিৎসার পর। তার পরই শারীরিক অসুস্থতা দেখিয়ে আদালতে ছ’দিনের জন্য ‘ছুটি’ চান চিদম্বরম। তিনি জানান, ৫ অক্টোবর থেকে পেটজ্বালা, ডায়েরিয়া এবং হজমের সমস্যায় ভুগছেন। অসম্ভব যন্ত্রণা হচ্ছে পেটে। ওজনও কয়ে গিয়েছে অনেকটা। হায়দরাবাদের এশিয়ান ইনস্টিটিউট অব গ্যাস্ট্রোএনটেরোলজি (এআইজি)-র নাগেশ্বর রেড্ডির কাছেই বরাবর চিকিৎসা করান। তাঁকেই দেখাতে চান।

চিদম্বরমের আবেদনের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার নাগেশ্বর রেড্ডি-সহ সাত চিকিৎসককে নিয়ে এমসে মেডিক্যাল বোর্ড গঠনের নির্দেশ দেয় দিল্লি হাইকোর্ট। সেই রিপোর্টই এ দিন জমা পড়ে আদালতে। তবে অন্তর্বর্তী জামিনের আবেদন মঞ্জুর না হলেও, চিকিৎসকদের পরামর্শ মেনে তিহাড় জেলে চিদম্বরমকে মিনারেল ওয়াটার দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। বায়ুদূষণের হাত থেকে বাঁচতে দিতে বলা হয়েছে মাস্কও। এ ছাড়াও, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন কুঠুরিতে রাখতে বলা হয়েছে চিদম্বরমকে। সেখানে বাড়ির খাবার, মশারিও পাবেন তিনি।

আরও পড়ুন: ৩০ নভেম্বর থেকে ঝাড়খণ্ডে পাঁচ দফায় ভোট, ফল ২৩ ডিসেম্বর, ঘোষণা কমিশনের​

আরও পড়ুন: গ্যাস চেম্বার’ দিল্লি! বাতাসের ভয়ানক অবনতিতে জনস্বাস্থ্য সংক্রান্ত জরুরি অবস্থা জারি​