কার্গিলে বরফের স্তরের ১২ ফুট তলা থেকে উদ্ধার করা হল তুষারধসে চাপা পড়া জওয়ানের দেহ। তিন ধরে তল্লাশি চালানোর পর রবিবার উদ্ধার হয়েছে কে বিজয় কুমার নামে ওই জওয়ানের দেহ। পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে বলে সেনাবাহিনী জানিয়েছে।

১৭ মার্চ জম্মু-কাশ্মীর স্বল্প তীব্রতার ভূকম্পন হয়। তাতেই তুষারধস নামে কার্গিল সেক্টরের একটি এলাকায়। সেখানে সেনাবাহিনীর একটি নজরদারি চৌকি তুষারধসের নীচে চাপা পড়ে। তুষারধসের খবর পেয়ে দ্রুত উদ্ধারকাজে নামে সেনা। সুজিত নামে এক জওয়ানকে উদ্ধার করা হয় সে দিনই। তিনি এখন চিকিৎসাধীন। তাঁর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল বলেও সেনা সূত্রে জানানে হয়েছে।

কে বিজয় কুমার তিন ধরে নিখোঁজ ছিলেন। তুষারধসে বিধ্বস্ত এলাকায় ১৫ ফুট পুরু বরফের আস্তরণ জমে গিয়েছে। প্রতিকূল আবহাওয়ায় অত বরফের নীচ থেকে কাউকে খুঁজে বার করা কঠিন হয়ে দাঁড়াচ্ছিল। উদ্ধারকারী কুকুর, ডিপ পেনিট্রেশন রেডার এবং মেটাল ডিটেক্টর নিয়ে তল্লাশি শুরু হয়। রবিবার বরফের ১২ ফুট গভীর থেকে কে বিজয় কুমারের দেহ উদ্ধার হয়েছে।

আরও পড়ুন:

মেরিন ড্রাইভে মহিলাদের সুরক্ষায় তিন কুকুর!

তামিলনাড়ুর তিরুনেলভেলি জেলার ভল্লারামাপুরমে শহিদ কে বিজয় কুমারের বাড়ি। তাঁর বাবা, মা এবং দুই বোন রয়েছেন। সেনাবাহিনীর নর্দার্ন কম্যান্ডের প্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল ডি এস হুডা কে বিজয় কুমারের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।