হিন্দু সমাজ পার্টির সভাপতি কমলেশ তিওয়ারির হত্যাকাণ্ডের তদন্তে উঠে এল নতুন সূত্র। গুজরাতের সন্ত্রাস দমন শাখা দাবি করেছে, কমলেশের সঙ্গে যোগাযোগ তৈরির জন্য আশফাক নামে এক জন নাম ভাঁড়িয়ে রোহিত সোলাঙ্কি নামে ফেসবুকে অ্যাকাউন্ট খুলেছিল চলতি বছরের জুনে। কমলেশের সঙ্গে রোহিতের দেখা করার কথা ছিল ১৮ অক্টোবর। ওই দিনই খুন হন কমলেশ।

এর আগে উত্তরপ্রদেশের ডিজিপি ও পি সিংহ জানিয়েছিলেন, খুনির সঙ্গে আগে থেকেই আলাপ ছিল কমলেশের। সেই সূত্রেই মিষ্টি উপহার দেওয়ার অজুহাতে কমলেশের সঙ্গে ৩০ মিনিট সময় কাটায় আততায়ীরা। তার পরেই তাকে খুন করে পালায় তদন্তে নেমে গ্রেফতার করা হয়েছে ছ’জনকে। উত্তরপ্রদেশ পুলিশের দাবি, কমলেশকে খুনের পরে আততায়ীরা লখিমপুর থেকে শাহজাহানপুরে পালানোর সময়ে যে গাড়িটি ভাড়া করেছিল, তার চালককে সোমবার জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।