• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ওঁ-ও বলল কিরণের সূর্য!

kiran
কিরণ বেদী।

সূর্য নাকি ‘ওঁ’ বলে! সেটা নাকি আবার নাসা-র দাবি! এমনই ভুয়ো খবরের ভিডিয়ো টুইট করে শনিবার নেট-বিদ্রুপের মুখে কিরণ বেদী। প্রাক্তন এই আইপিএস অফিসার এখন পুদুচেরির লেফটেনান্ট গভর্নর।

শনিবার সকালেই কিরণ একটি ভিডিয়ো টুইট করেন, যেখানে দাবি করা হচ্ছে, মার্কিন মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র নাসা নাকি সূর্যের ওঁকার-ধ্বনি রেকর্ড করেছে! অল্প সময়ের মধ্যেই প্রায় ৭ হাজার রিটুইট আর কটাক্ষের বন্যা। কেউ বলেন, ‘‘সূর্য শুধু ওঁ বলে? ২০১৪-র পর থেকে বাঃ মোদীজি বাঃ বলে না?’’ পুরনো উদাহরণ টেনে এক জন মনে করিয়েছেন, ‘‘প্রাক্তন আইপিএস কিরণ সূর্যের ওঁকার বিশ্বাস করেন। আর এক প্রাক্তন আইপিএস সত্যপাল সিংহ যেমন ডারউইনকে ভুয়ো বলে মানেন। ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তনী পীযূষ গয়াল যেমন আইস্টাইনকে মহাকর্ষের আবিষ্কারক বলে জানেন!’’ আর এক নেটিজেন ‘কোই মিল গয়া’ ছবির চরিত্র জাদুর ছবি পোস্ট করে বলেছেন, ‘‘ম্যাডাম, পুরো গল্পটা বলুন। নাসা ওঁ রেকর্ড করার সময় এক সংস্কৃতভাষী অ্যালিয়েনকেও খুঁজে পেয়েছিল।’’

কিন্তু কোথা থেকে উদ্ভব হল এই টুইটের? ভুয়ো খবরের কারখানা কী ভাবে দিনকে রাত করে, এটা তারই একটা প্রমাণ বলে মনে করছেন অনেকে। ২০১৮ সালে নাসা একটা টুইট করেছিল। যাতে বলা হয়েছিল, ‘‘সূর্য শব্দহীন নয়। তার একটা নিচু গুনগুনানি স্পন্দনধ্বনি আছে। যার ভিত্তিতে বিজ্ঞানীরা সূর্যের অভ্যন্তরে ধাতব নদীর অস্তিত্বের প্রমাণ পেয়েছেন।’’ এই তথ্যটা নিয়েই ভুয়ো খবরের কারবারিরা ওঁকার-এ পরিণত করেছে বলে মনে করা হচ্ছে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন