• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘রং সাইডে’ গাড়ি চালালেই সাসপেন্ড, এমনকি বাতিল হবে লাইসেন্সও! নতুন নিয়ম গুজরাতে

driving
প্রতীকী ছবি।

Advertisement

বেপরোয়া বাইকের দাপট কমাতে যখন এ শহরের পুলিশ হিমশিম খাচ্ছে, রাজ্য সরকার ‘সেফ ড্রাইভ, সেভ লাইফ’ প্রচার চালিয়েও গাড়ির গতিতে রাশ টানতে পারছে না, ঠিক তখনই অন্য একটা ছবি দেখা গেল এ দেশেরই পশ্চিম প্রান্তের রাজ্য গুজরাতে।

‘রং সাইড’-এ গাড়ি চালানো নিয়ে কঠোর পদক্ষেপ করল রাজ্য প্রশাসন। নতুন একটি ট্র্যাফিক আইন আনা হয়েছে সে রাজ্যে। নতুন এই আইনে বলা হয়েছে, কোনও চালক যদি ‘রং সাইড’ দিয়ে গাড়ি চালানোর সময় প্রথম বার ধরা পড়েন,তখনতাঁর বিরুদ্ধে একটা মামলা দায়ের করা হবে।শুধু তাই নয়, তাঁর গাড়ির লাইসেন্স তিন মাসের জন্য মাসের জন্য সাসপেন্ড করে দেওয়া হবে। ক্ষেত্রবিশেষে এই মেয়াদ ছ’মাসও হতে পারে।

এর পরেও কেউ যদি ভেবে থাকেনযে ‘শাস্তি’র সীমা এইটুকুই, তা হলে ভুল ভাবা হবে। কারণ আরটিও অফিসাররা জানাচ্ছেন, প্রথমবারের জন্য ধরা পড়ে লাইসেন্স সাসপেন্ড হবে। তবে দ্বিতীয় বার যদি একই কাজের জন্য ধরা পড়েন কোনও চালক, সে ক্ষেত্রে তখন আর লাইসেন্স সাসপেন্ড নয়, একেবারে বাতিল করে দেওয়া হবে। এবং সেই সঙ্গে ওই চালককে ‘ব্ল্যাক লিস্টেড’ করা হবে।

আরও পড়ুন: হাঁটু সমান বরফের মধ্যেই অরুণাচলে দেখা মিলল রয়্যাল বেঙ্গলের

এ ব্যাপারে ট্র্যাফিকের ডেপুটি পুলিশ কমিশনার (পশ্চিম) সঞ্জয় খারাট জানান, আগে ট্র্যাফিক আইন পাঁচ বার ভাঙার পর লাইসেন্স বাতিল করা হত। কিন্তু সংশোধিত নতুন আইনে সেই সুযোগ আর থাকছে না। দু’বার আইন ভাঙলেই পুলিশ আরটিও অফিসকে লাইসেন্স বাতিল করার প্রস্তাব দিতে পারবে।

গুজরাতের নতুন ট্র্যাফিক আইন নিয়ে বেশ সাড়া পড়ে গিয়েছে। নানা রকম প্রতিক্রিয়াও পাওয়া গিয়েছে। রাজ্য প্রশাসনের এই সিদ্ধান্তকে অনেকই কুর্নিশ জানিয়েছেন। কেউ কেউ আবার বলছেন, গোটা দেশে এ রকম ট্র্যাফিক আইন চালু করলে তবে যদি গতিতে লাগাম পরানো সম্ভব হয়! আবার কেউ বলছেন, ট্র্যাফিক আইন ভাঙার আগে এ বার থেকে দু’বার ভাববেন চালকরা।

আরও পড়ুন: চাষিদের আত্মহত্যার তথ্য রাখছে না সরকার

 

(দেশজোড়া ঘটনার বাছাই করা সেরাবাংলা খবরপেতে পড়ুন আমাদেরদেশবিভাগ।)

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন