• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

২৯ মে পর্যন্ত লকডাউন বাড়ল তেলঙ্গানায়

KC Rao
লকডাউন বৃদ্ধির ঘোষণা করছেন তেলঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী কেসি রাও। ছবি- পিটিআই।

তেলঙ্গানায় তৃতীয় দফার লকডাউন চলবে আগামী ২৯ মে পর্যন্ত। প্রায় সাত ঘণ্টা ধরে চলা মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এ কথা জানিয়েছেন তেলঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও। তাঁর দাবি, ‘‘মানুষ চাইছেন লকডাউন বাড়়ুক। আমি প্রধানমন্ত্রীকে আমাদের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দিয়েছি।’’

কেন্দ্রের ঘোষণা অনুসারে দেশ জুড়ে তৃতীয় দফার লকডাউন শেষ হওয়ার কথা আগামী ১৭ মে। কিন্তু তাঁর আগেই তেলঙ্গানায় লকডাউন বৃদ্ধির কথা জানালেন চন্দ্রশেখর। এর আগেও কেন্দ্রের ঘোষণার আগেই বিভিন্ন রাজ্য লকডাউন বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। কিন্তু তৃতীয় দফার লকডাউন বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত প্রথম নিল তেলঙ্গানাই।

দক্ষিণের এই রাজ্যের ছয়টি জেলা রয়েছে রেড জোনের আওতায়। তার মধ্যে গ্রেটার হায়দরাবাদ মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন, রঙ্গরেড্ডি ও মেদচল— এই তিনটি জেলায় অবস্থা বেশ খারাপ। কনটেনমেন্ট এলাকা বাদে কেন্দ্র রেড জোনে দোকানপাট খোলার কথা বললেও সেই পথে হাঁটেনি তেলঙ্গানা। চন্দ্রশেখর জানিয়েছেন, ‘‘কেন্দ্র বলেছে রোড জোনে দোকানপাট খোলা যাবে। কিন্তু আমরা হায়দরাবাদ, মেদচল, সূর্যপেট, ভিকারাবাদে কোনও দোকান খুলতে দিইনি।’’

আরও পড়ুন: মৃত্যু নিয়ে কেন্দ্রীয় সাইটে হঠাৎ কো-মর্বিডিটির উল্লেখ, উঠছে প্রশ্ন

রেড জোনে দোকান খুলতে না দিলেও কৃষিক্ষেত্র ও শিল্পক্ষেত্রে কিছু অংশ চালু করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। শস্যবীজ, সার ও কৃষিপণ্যের দোকান খোলা থাকবে বলে জানানো হয়েছে সে রাজ্যের সরকারের তরফে। এ ব্যাপারে চন্দ্রশেখর রাও বলেছেন, ‘‘পৃথিবীর কোনও দেশই এই অসময়ে আমাদের খাওয়াবে না। তাই খাদ্য নিরাপত্তার ব্যাপারে স্বনির্ভরতা হারাতে চাই না আমরা।’’

কেন্দ্রীয় সরকারের তথ্য অনুসারে, তেলঙ্গানায় কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত হয়েছেন এক হাজার ৮৫ জন। করোনা সেখানে প্রাণ কেড়েছে ২৯ জনের। করোনা মোকাবিলায় কেন্দ্র যখন ধাপে ধাপে বাড়াচ্ছে লকডাউন, সে সিদ্ধান্ত আগেভাগেই নিয়ে রাখল তেলঙ্গানা।

আরও পড়ুন: ‘স্ট্রংম্যান’ নয়, হাতে চাই নগদ টাকা: অভিজিৎ

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন